নির্বাচিত চলচ্চিত্র শিল্পীরা শপথ নেবেন, ৩০ অক্টোবর 

নির্বাচিত চলচ্চিত্র শিল্পীরা শপথ নেবেন, ৩০ অক্টোবর 

নির্বাচিত চলচ্চিত্র শিল্পীরা শপথ নেবেন, ৩০ অক্টোবর 

২৫ অক্টোবর অনুষ্ঠিত হয় বাংলাদেশ চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ২০১৯-২১ মেয়াদের নির্বাচন। এ নির্বাচনে পুরো প্যানেল জয় লাভ করে মিশা জায়েদ পরিষদ।

এদিকে নবনির্বাচিত শিল্পীরা ৩০ অক্টোবর শপথ গ্রহণ করবেন বলে জানিয়েছেন শিল্পী সমিতির সাধারণ সম্পাদক জায়েদ খান। তিনি জানান, বাংলাদেশ চলচ্চিত্র উন্নয়ন করপোরেশনের (বিএফডিসি) জহির রায়হান ভিআইপি প্রজেকশনে শপথ নেবেন তারা।

জায়েদ খান বলেন, ‌‘এদিন শিল্পীদের সঙ্গে পুরোনো দায়িত্ব নতুন করে বুঝে নেব আমরা। পাশাপাশি নতুন অনেকে প্রথমবারের মতো দায়িত্ব নেবেন।’

২৫ অক্টোবর, শুক্রবার দিবাগত রাত পৌনে ২টার দিকে দ্বিবার্ষিক (২০১৯-২১) এই নির্বাচনের ফল ঘোষণা করেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার ইলিয়াস কাঞ্চন। সভাপতি পদে মিশা সওদাগরের বিপরীতে ছিলেন স্বতন্ত্র প্রার্থী মৌসুমী। সাধারণ সম্পাদক পদে জায়েদ খানের বিপরীতে ছিলেন আরেক স্বতন্ত্র প্রার্থী ইলিয়াস কোবরা।

সহ-সভাপতির দুটি পদে জয়লাভ করেন ডিপজল ও রুবেল। সহ-সাধারণ সম্পাদক পদে আরমান, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক পদে মামনুন ইমন, সংস্কৃতি ও ক্রীড়া সম্পাদক পদে জাকির হোসেন নির্বাচিত হন।

এদিকে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচন ছাড়াই বিজয়ী হয়েছেন সাংগঠনিক সম্পাদক পদে সুব্রত, দপ্তর ও প্রচার সম্পাদক পদে জ্যাকি আলমগীর ও কোষাধ্যক্ষ পদে ফরহাদ। ১১টি কার্যনির্বাহী সদস্যপদে ১৪ জন প্রার্থীর মধ্যে জয়লাভ করেন অঞ্জনা সুলতানা, রোজিনা, অরুণা বিশ্বাস, আলীরাজ, বাপ্পারাজ, আফজাল শরীফ, মারুফ, আসিফ ইকবাল, আলেকজান্ডার বো, জেসমিন ও জয় চৌধুরী। এরা মিশা-জায়েদ প্যানেলের হয়ে নির্বাচন করেছেন।

এবার চলচ্চিত্র শিল্পী সমিতির ভোটার ছিল ৪৪৯ জন। ভোট দিয়েছেন ৩৮৬ জন। প্রধান নির্বাচন কমিশনার ইলিয়াস কাঞ্চনের সঙ্গে কমিশনার হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন পীরজাদা শহিদুল হারুন ও বিএইচ নিশান। আপিল বোর্ডের চেয়ারম্যান হিসেবে আছেন আলম খান, সদস্য হিসেবে রয়েছেন সোহানুর রহমান সোহান ও রশিদুল আমিন হলি।

পাঠকের মন্তব্য