আমরা সবাই মিথ্যা মামলা এবং নির্যাতনের শিকার : ফখরুল

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর

নয়া পল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত দোয়া ও মাহফিল অনুষ্ঠানে বক্তব্য দেন বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। 
বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর বলেছেন, ‘বিএনপি নেতারা খারাপ সময় পার করছেন।’

বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান ও অবিভক্ত ঢাকা সিটি করপোরেশনের সাবেক মেয়র সাদেক হোসেন খোকার দ্রুত রোগমুক্তি কামনায় আয়োজিত দোয়া মাহফিলে তিনি এ কথা বলেন। আজ শুক্রবার নয়াপল্টনে দলের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচ তলায় বিএনপি এ দোয়া মাহফিলের আয়োজন করে। বিএনপির নেতা-কর্মীরা দোয়া মাহফিলে অংশ নেন। বার্তা সংস্থা ইউএনবি ওই তথ্য দিয়েছে।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সরকারের নির্যাতনের কারণে বিএনপি নেতারা খারাপ সময় পার করছেন। আমরা সবাই মিথ্যা মামলা এবং নির্যাতনের শিকার।’

তিনি বলেন, ‘খোকা ভাই এবং তার পরিবারের সদস্যদের বিরুদ্ধে মামলা দেয়া হয়েছে।’ মির্জা ফখরুল বলেন, ‘সরকারের নির্যাতনে আজকে সারাদেশের সমস্ত মানুষই অসুস্থ হয়ে পড়েছে।  সাদেক হোসেন খোকার বিরুদ্ধে বিভিন্ন রকম মামলা করে সাজা দিয়েছে। শুধু তাকে নয় তার পরিবারকেও। বিএনপির নেতাকর্মীরা তৈরী হচ্ছে আন্দোলনের মাধ্যমে দানবীয় সরকার সরিয়ে জনগণের সরকার প্রতিষ্ঠার জন্য।’

এসময় তিনি বিএনপি চেয়ারপার্সন খালেদা জিয়া এবং খোকার দ্রুত রোগমুক্তির জন্য সবাইকে দোয়া করার আহ্বান জানান।

বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘খোকা গুরুতর অসুস্থ। ‘গত ২৯ অক্টোবর আমি তার সাথে কথা বলেছি। তিনি কথা বলতে পারছিলেন না। তিনি শুধু বলেছেন, আমার জন্য সবাইকে দোয়া করতে বলবেন।’

ঢাকা দক্ষিণ সিটি ইউনিট বিএনপি সভাপতি হাবিব-উন-নবী খান সোহেল বলেন, ‘খোকার অসুস্থতার খবরে দলের নেতা-কর্মীরা মর্মাহত।’ দেশ ও জাতির ‘ক্রান্তিলগ্নে’ খোকা যেন দ্রুত সুস্থ হয়ে দলের নেতা-কর্মীদের মাঝে ফিরে আসতে পারেন সেজন্য তিনি মহান আল্লাহর কাছে সবাইকে দোয়া করতে বলেন।

যুক্তরাষ্ট্রে দীর্ঘদিন ধরে ক্যানসারের চিকিৎসা নেয়া খোকার শারীরিক অবস্থা সম্প্রতি অবনতি হয়। তিনি নিউইয়র্কে ম্যানহাটনের মেমোরিয়াল স্নোন ক্যাটারিং ক্যান্সার সেন্টারে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

সাবেক মন্ত্রী খোকা ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনের আগে গ্রেপ্তার হন। কারাগার থেকে জামিনে মুক্ত হয়ে রাজধানীর বারডেম হাসপাতালে ভর্তি হন তিনি। তবে চিকিৎসকরা তার শারীরিক সমস্যা ধরতে পারেননি। পরে ২০১৪ সালের ১৪ মে তিনি যুক্তরাষ্ট্রে যান এবং তখন থেকেই সেখানে চিকিৎসা নিচ্ছেন। 

পাঠকের মন্তব্য