বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট ধন্যবাদ জানালেন টাইগারদের

বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট ধন্যবাদ জানালেন টাইগারদের

বিসিসিআই প্রেসিডেন্ট ধন্যবাদ জানালেন টাইগারদের

এয়ার কোয়ালিটি ইনডেক্স (একিউআই) ইতোমধ্যেই দিল্লির বাতাসকে ‘খুব খারাপ’ হিসেবে চিহ্নিত করেছে। একিউআইয়ের মানদণ্ড অনুযায়ী, দিল্লির বাতাসে দূষণের মাত্রা ৩০১-৪০০, যা শ্বাসকষ্ট ও অন্যান্য শারীরিক অসুস্থতার কারণ হতে পারে।

মাত্রাতিরিক্ত বায়ু দূষণের কারণে স্বাস্থ্যঝুঁকির আশঙ্কা নিয়েই দিল্লিতে সফরকারী বাংলাদেশ আর স্বাগতিক ভারতের ক্রিকেটারদের মাঠে নামতে হয়। আর সেখানে স্বাগতিকদের হারিয়ে তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজে লিড নিয়েছে টাইগাররা।

দিল্লির অরুন জেটলি স্টেডিয়ামে রোববার সিরিজের প্রথম ম্যাচে ভারতকে ৭ উইকেটে হারিয়েছে বাংলাদেশ। অথচ দূষিত বায়ুতে ম্যাচের দিন এই ম্যাচটি মাঠে গড়ানো নিয়েও উঠেছিল শঙ্কা। সব শঙ্কা দূরে ঠেলে দিল্লির বাতাসে হুঙ্কার দিয়েছে টাইগাররা।

দীপাবলি উৎসবে দিল্লির বায়ুদূষণের মাত্রা আরও তীব্র হয়। দিল্লির অসহনীয় বায়ু দূষণের কারণে পরিবেশবাদিদের চিঠি পেয়েছিল ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড (বিসিসিআই)। তারা জানায় দিল্লিতে বাংলাদেশ-ভারত টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি যেন আয়োজন না করা হয়। বাংলাদেশ-ভারত টি-টোয়েন্টি ম্যাচটি দিল্লিতে না করে অন্য কোনো শহরে আয়োজন করা যেত কী না-এমন প্রশ্নেরও জবাব দিতে হয়েছে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের নতুন প্রেসিডেন্ট সৌরভ গাঙ্গুলিকে।

তবে, সব জল্পনা-কল্পনার অবসান ঘটিয়ে ম্যাচটি শেষ হয়েছে। ম্যাচ শেষে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ড প্রেসিডেন্ট গাঙ্গুলি টুইট করেছেন। সেখানে তিনি লেখেন, ‘ধন্যবাদ দুই দলকে এমন কঠিন কন্ডিশনে এই ম্যাচটি খেলার জন্য। অভিনন্দন বাংলাদেশ।’

টি-টোয়েন্টির হাজারতম ম্যাচে জিততে হলে বাংলাদেশের প্রয়োজন ছিল ২০ ওভারে ১৪৯। সাকিব, তামিমবিহীন বাংলাদেশের জন্য এই রান তাড়া করা চ্যালেঞ্জিং হলেও মুশফিকের ব্যাটে ভর করে ৩ বল হাতে রেখে ৭ উইকেটের বড় ব্যবধানে জিতেছে টাইগাররা। মুশির ৪৩ বলে অপরাজিত ৬০ রানের ইনিংসে ছিল আটটি চার ও একটি ছক্কা।

নবম চেষ্টায় ভারতের বিপক্ষে প্রথম জয় তুলে নেয় বাংলাদেশ। তবে, ম্যাচ শেষে তেমন একটা উদযাপন করেনি বাংলাদেশ। হয়তো সিরিজ নিশ্চিত করেই উদযাপনটা করবেন মুশফিক-মাহমুদউল্লাহরা।

পাঠকের মন্তব্য