ঝিনাইদহের মহারাজপুর ইউনিয়ানে সন্ত্রাসীদের অস্ত্রের আঘাতে আহত ৩

ঝিনাইদহের মহারাজপুর ইউনিয়ানে সন্ত্রাসীদের অস্ত্রের আঘাতে আহত ৩

ঝিনাইদহের মহারাজপুর ইউনিয়ানে সন্ত্রাসীদের অস্ত্রের আঘাতে আহত ৩

ঝিনাইদহ সদর উপজেলার বিষয়খালী বাজারের রাজ্জাকের চায়ের দোকানের সামনে শনিবার দুপুরে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সন্ত্রাসীদের ধারালো অস্ত্রে আঘাতে বিষয়খালী গ্রামের আব্বাস আলীর পুত্র মামুন(১৮), আব্দুর রাজ্জাকের পুত্র হৃদয় (২২) ও কেশবপুর গ্রামের মৃত আব্দুর রবের পুত্র ব্যবসায়ী জুব্বার(৪৫) নামের তিনজন মারাক্তকভাবে জখম হলে তাদের দ্রুত ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এর মধ্যে মামুন ও জুব্বারের অবস্থা আশস্কাজনক বলে জানাগেছে। প্রত্যক্ষদশী সূত্রে জানা গেছে, মোবাইলে হুমকি দেওয়া কে কেন্দ্র করে মিরাজ ও রাসেলের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে বিষয়খালী গ্রামের মনোয়ার হোসেন ও তার তিন পুত্র মিরাজ, মেহেদী, সংগ্রাম এছাড়াও একই গ্রামের শহিদুল ইসলামের পুত্র সুমনসহ অপরিচিত ১০/১২ জন ব্যক্তি এসে মারামারি ঠেকাতে আসা মামুন, হৃদয় ও জুব্বারকে তারা এলোপাতাটি কুপিয়ে জখম করে। আহতদের কে ঝিনাইদহ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এবিষয়ে আহত জুব্বারের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন আমি ব্যবসায়ের কাজে ঐ রাস্তা দিয়ে যাচ্ছিলাম এসময় মারামারি ঠেকাতে গেলে আমার মাথায় ধারালো অস্ত্রদিয়ে কোপ মারে এবং আমার নিকট থেকে ব্যবসায়ের ৮০হাজার টাকা ছিনিয়ে নেয়। মিরাজের নিকট জানতে চাইলে, তিনি থানা যুবলীগের অফিস সহায়ক পরিচয় দিয়ে বলেন, তারা নিজেরা মারামারি করে আমাদের উপর দোষ চাপানোর চেষ্টা করছে আমরা কাওকে মারধোর করি নাই।

বিষয়টি নিয়ে ঝিনাইদহ সদর থানা যুবলীগের আহবায়ক ইব্রাহীম খলিল রাজা বলেন, মিরাজ নামে যুবলীগের অফিসে কোন অফিস সহায়ক নেয়। সে মিথ্যা পরিচয় দিয়েছে।

এবিষয়ে ঝিনাইদহ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মঈন উদ্দীন জানান অভিযোগ পেয়েছি তদন্ত সাপেক্ষে ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।

পাঠকের মন্তব্য