হাড়, দাঁত ও মাড়ির ক্ষয়রোধের মহৌষধ ‘সরিষার বীজ’

হাড়, দাঁত ও মাড়ির ক্ষয়রোধের মহৌষধ ‘সরিষার বীজ’

হাড়, দাঁত ও মাড়ির ক্ষয়রোধের মহৌষধ ‘সরিষার বীজ’

সরিষার বীজ ভারতীয় এবং আমেরিকান খাবারের একটি জনপ্রিয় রান্নার উপাদান। এটি প্রথমে ইউরোপের শীতকালীন অঞ্চলে ব্যবহৃত হয়েছিল। পরে ধীরে ধীরে উত্তর আফ্রিকা, এশিয়া অঞ্চলে জনপ্রিয় হয়ে ওঠে। এখন পুরো বিশ্ব এর উপকারিতা সম্পর্কে অবগত।       

সরিষা বীজ বিভিন্ন রঙের হয়ে থাকে। সাদা, হলুদ বা লাল সবগুলোরই রয়েছে স্বাস্থ্যগুণ। কয়েক দশক ধরে রান্নার পাশাপাশি এটি ওষুধ হিসেবে ব্যবহার করা হয়। জেনে নিন সরিষা বীজের কয়েকটি স্বাস্থ্য উপকারিতা এবং এটি কোন কোন রোগের উপশম-

ক্যান্সার রোধ করে

সরিষার বীজগুলোতে গ্লুকোসিনোলেটস এবং মাইরোসিনেজ রয়েছে। যা দেহে ক্যান্সার সৃষ্টিকারী কোষগুলোকে মারতে সহায়তা করে। জার্নাল হিউম্যান অ্যান্ড এক্সপেরিমেন্টাল টক্সিকোলজিতে প্রকাশিত সমীক্ষা অনুসারে, ক্ষুদ্র বীজের কেমোপ্রেনভেটিভ সম্ভাবনা রয়েছে। যা কার্সিনোজেনের প্রভাব থেকে রক্ষা করে।

মাথা ব্যথা থেকে মুক্তি দেয়

যারা মাইগ্রেন বা মাথাব্যথায় ভুগছেন তারা সরিষা কাঁচা খেতে পারেন। এতে থাকা ম্যাগনেসিয়াম স্নায়ুতন্ত্রকে প্রশান্ত করে এবং আমাদের শরীরের বিভিন্ন অংশের ব্যথা এবং স্ট্রেইন থেকে মুক্তি দেয়।

হজমে সহায়তা করে

সরিষার বীজ হজম প্রক্রিয়ার জন্য খুবই ভালো সমাধান। যদি বদহজমের সমস্যায় ভুগে থাকেন তবে সরিষার বীজ আপনাকে সহায়তা করতে পারে। সরিষার বীজে ফাইবার থাকে। যা অন্ত্রের সহজ চলাচলে সহায়তা করে এবং শরীরের হজম শক্তি বাড়ায়।

কার্ডিওভাসকুলার স্বাস্থ্যের জন্য ভালো

যারা কার্ডিওভাসকুলার সমস্যায় ভুগছেন। তাদের জন্য এটি মহৌষধ হিসেবে বিবেচিত হয়। এটি আপনার কোলেস্টেরল স্তর পরিচালনা করতে সহায়তা করে। রক্তের খারাপ কোলেস্টেরলের মাত্রা কমিয়ে দেয়। যা হার্টের স্বাস্থ্য ভালো রাখার জন্য খুবই প্রয়োজনীয়।

হাড়, দাঁত এবং মাড়ির ক্ষয়রোধ করে

সরিষার বীজ হাড়ের ক্ষয়রোধের জন্য ভালো। কারণ এতে সেলেনিয়াম নামক খনিজ থাকে, যা আপনার হাড়কে শক্তিশালী করে। এছাড়াও আপনার নখ, চুল এবং দাঁত মজবুত করতেও সহায়তা করে। সরিষার বীজে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট এবং অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা মাড়ি, হাড় এবং দাঁতের ব্যথা উপশম করতে সহায়তা করে।

ত্বকের যত্নে    

শীতের মৌসুমে ত্বককে হাইড্রেড রাখতে সরিষার বীজ সহায়তা করে। সরিষার বীজে থাকা অ্যান্টি-ইনফ্ল্যামেটরি দেহে প্রদাহ হ্রাস করতে পারে। যা আপনার ত্বককে ব্রণ থেকে রক্ষা করে। এমনকি সরিষার বীজে ভিটামিন এ, কে এবং সি রয়েছে। যা আপনার বয়স বাড়ার লক্ষণগুলো নিয়ন্ত্রণ করতে সহায়তা করবে।

সরিষার বীজ কীভাবে খাবেন ?

  1. রান্নায় সরিষার বীজ বা সরিষার তেল ব্যবহার করতে পারেন।
  2. সালাদ ড্রেসিং, আচার বা চাটনিতে সরিষার বীজ যোগ করতে পারেন।
  3. এছাড়াও কাঁচা সরিষার বীজ ভর্তা খেতে পারেন।

সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

পাঠকের মন্তব্য