মানব পাচারকারী চক্রের দুই সদস্যকে আটক করেছে র‍‌্যাব

মানব পাচারকারী চক্রের দুই সদস্যকে আটক করেছে র‍‌্যাব

মানব পাচারকারী চক্রের দুই সদস্যকে আটক করেছে র‍‌্যাব

পাবনায় অভিযান চালিয়ে মানব পাচারকারী চক্রের দুই সদস্যকে আটক করেছে র‍‌্যাব সদস্যরা।

শুক্রবার সকালে শহরের পৈলানপুর মহল্লার সবেদার বাগান থেকে তাদের আটক করা হয়। এসময় দুইজন ভুক্তভোগী নারীকে উদ্ধার করা হয়।

আটককৃতরা হলেন- রাজশাহীর বোয়ালিয়া থানার সপুরা মিয়াপাড়া এলাকার আব্দুল হানিফের মেয়ে শিমু শেখ (৩২) ও নাটোর সদর থানার কানাইখালী চৌধুরীপাড়া মহল্লার দেলোয়ার হোসেনের ছেলে আব্দুল ওয়াহাব (২৬)।

উদ্ধারকৃত দুইজন হলেন- রাজবাড়ি সদর উপজেলার মতিয়াগাছি গ্রামের ওমর ফারুকের স্ত্রী কারিমা খাতুন (১৮) ও একই গ্রামের সুমন মোল্লার স্ত্রী ফাতেমা আক্তার বৃষ্টি (১৮)।  

পাবনা ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কোম্পানি কমান্ডার সহকারী পুলিশ সুপার আমিনুল কবীর তরফদার জানান, ফেসবুকের মাধ্যমে কারিমা খাতুনের সাথে বন্ধুত্ব গড়ে তোলে মানব পাচারকারী চক্রের সদস্য শিমু শেখ। পরে মোবাইল ফোনে তাকে মোটা অংকের বেতনে বিদেশে চাকরি দেবার প্রলোভন দেয় শিমু ও ওয়াহাব। ভালো চাকরি ও উন্নত জীবন যাপনের আশায় ভিকটিম কারিমা তার স্বামীকে না জানিয়ে পাবনায় আসামিদের ভাড়া বাসায় চলে আসেন। স্ত্রীকে না পেয়ে ওমর ফারুক র‍‌্যাব-১২ পাবনায় অভিযোগ দেন। অভিযোগের প্রেক্ষিতে অনুসন্ধানের পর মোবাইলের কলের অবস্থান ধরে শুক্রবার সকালে পাবনা শহরের পৈলানপুর মহল্লার এক তিনতলা বাড়ি থেকে শিমু শেখ ও ওয়াহাবকে আটক। উদ্ধার করা হয় দুই ভুক্তভোগী নারীকে।

এ ঘটনায় সদর থানায় মামলা দায়েরের পর ওই মামলায় দুইজনকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আদালতের মাধ্যমে জেলহাজতে পাঠানো হয়েছে।

পাঠকের মন্তব্য