মুক্তিযোদ্ধার জমি দখল করে পাকা ভবন নির্মানের অভিযোগ

মুক্তিযোদ্ধার জমি দখল করে পাকা ভবন নির্মানের অভিযোগ

মুক্তিযোদ্ধার জমি দখল করে পাকা ভবন নির্মানের অভিযোগ

আদালতের নির্দেশ অমান্য করে মুক্তিযোদ্ধার জমিতে পাকা ভবন নির্মানের অভিযোগ পাওয়া গেছে। জানা গেছে, বরিশালের আগৈলঝাড়া উপজেলার রাজিহার ইউনিয়নের চেগুটিয়া মৌজার কাজীর গ্রাম সাজুরিয়ায় বীর মুক্তিযোদ্ধা আঃ মান্নান সরদারের স্ত্রীর পত্রিক সম্পত্তি ৩৬ খতিয়ানের ওপরে  লোলুপ দৃষ্টি পরে ঐ এলাকার কুব্বত আলীর ছেলে সালাম সরদার ও মনির সরদার গংদের। 

সালাম সরদার গং  একটি জাল দলিলের মাধ্যমে মুক্তিযোদ্ধার স্ত্রী চন্দ্রবান বেগমের  নামে থাকা জমি দখলের পায়তারা করলে চন্দ্রবান বেগম বাদি হয় ২০০৭ সালে বরিশাল জেলা জজ আদালতে একটি মামলা দায়ের করেন। মামলার নং ৪১/৭। দীর্ঘদিন মামলা চলার পরে ২০১৪ সালে আদালত বীর মুক্তিযোদ্ধা আঃ মান্নান সরদারের স্ত্রী চন্দ্রবান বেগমের পক্ষে রায় ঘোষণা করেন। বাদীপক্ষ রায় পেলে সালাম সরদার গং বিজ্ঞ আদালতে একটি আপিল করলে আপিলটি বিজ্ঞ আদালত নামঞ্জুর করেন। 

অতঃপর সালাম গং মামলাটি নিন্ম আদালতে রিমান্ডে নেয় এবং পাকাভবন নির্মাণ করার পায়তারা করলে আদালত ২৫/০১/২০১৮ইং নিষেধাজ্ঞা জারি করেন। আদালতের নিষেধাজ্ঞা উপেক্ষা করে সালাম গং এলাকার এক প্রভাবশালীর মাধ্যমে পাকা ভবনের কাজ শুরু করলে গত ০৬/০১/২০২০ইং তারিখে আদালত পাকা বাড়ি নির্মাণের কার্যক্রম বন্ধের নির্দেশ দিলে, আগৈলঝাড়া থানার ওসি মোঃ আফজাল হোসেনের হস্তক্ষেপে অবৈধ পাকা বাড়ির কার্যক্রম বন্ধ  হয়। গত ২৩/০১/২০২০ ইং তারিখে সালাম গং আবারও পাকা বাড়ির কাজ শুরু করেন। বীর মুক্তিযোদ্ধা আঃ মান্নান সরদার সাংবাদিকদের জানান, তার স্ত্রীর জমিতে অবৈধভাবে পাকা বাড়ি নির্মাণ করতে না করলে তার পরিবারকে প্রাননাশের হুমকি দেয় সালাম গং। বীর মুক্তিযোদ্ধা প্রশাসনের উর্ধতন কর্মকর্তাদের হস্তক্ষেপ কামনা করছেন।

পাঠকের মন্তব্য