নীলফামারতে কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন বিদেশ ফেরত ৫২ জন 

নীলফামারতে কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন বিদেশ ফেরত ৫২ জন 

নীলফামারতে কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন বিদেশ ফেরত ৫২ জন 

নীলফামারী জেলায় হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন বিদেশ ফেরত ৫২জন ব্যক্তি। তাদের মধ্যে নীলফামারী পৌরসভা মেয়র ও জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি দেওয়ান কামাল আহমেদ এবং এক চিকিৎসক দম্পতিও হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছে। 

ভারত ভ্রমন শেষে সম্প্রতি দেশে ফিরে বুধবার থেকে নিজ নিজ বাড়ীতে স্বেচ্ছায় হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন পৌরসভা মেয়র এবং ওই চিকিৎসক দম্পতি। অন্যান্যরা বিভিন্ন দেশ থেকে ফিরে জেলা প্রশাসন ও জেলা স্বাস্থ্য বিভাগের নির্দেশে হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন।

জেলা স্বাস্থ্য বিভাগ জানায়, গত ১ ডিসেম্বর থেকে ১৯ মার্চ পর্যন্ত  বিদেশ থেকে ৮৯ জন ফেরেন নীলফামারী জেলায়। তাদের মধ্যে বৃহস্পতিবার বিকাল পর্যন্ত ৫২জন রয়েছেন হোম কোয়ারেন্টাইনে। বাকী ৩৭ জনের হোম কোয়ারেন্টাইন শেষে হয়েছে ইতোমধ্যেই। তারা সকলে সুস্থ্য আছেন।

ওই ৫২ জনের মধ্যে সিঙ্গাপুর থেকে ১৪ জন, অস্ট্রেলিয়া থেকে ১ জন, কাতার থেকে ১ জন, মালেশিয়া থেকে ৭ জন এবং ইতালী থেকে ২ জন, দুবাই থেকে ৪ জন, ভারত ১৩ জন, মরিশাস ২, মালদ্বীপ ২ সৌদি আরব ২, কঙ্গো ২, ব্রনাই ১, বাহরাইন থেকে ১ জন নীলফামারী জেলায় এসেছেন। 
নীলফামারী পৌর মেয়র দেওয়ান কামাল আহমেদ বলেন, “আমি ভারতের যে এলাকায় গিয়েছিলাম সেখানে করোনা ভাইরাসের কোনো রোগি সনাক্ত হয়নি। তার পরেও ভারত থেকে ফেরার পর বাড়িতে ছিলাম। বুধবার থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে হোম কোয়ারেন্টাইনে আছি।”

সিভিল সার্জন রনজিৎ কুমার বর্মন বলেন, ‘‘করোনা মোকাবেলায় আমরা সার্বিকভাবে প্রস্তুত রয়েছি। স্বাস্থ্য বিভাগ জনসচেতনতার কাজ অব্যাহত রেখেছে। জনপ্রতিনিধিসহ বিভিন্ন পর্যায়ের ব্যক্তিদের সঙ্গে মতবিনিময় করে বিদেশ ফেরৎ ব্যক্তিদের হোম কোয়ারেন্টাইনে থাকার পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে।’’

নীলফামারী জেলা প্রশাসক মো. হাফিজুর রহমান চৌধুরী বলেন,“বিদেশ ফেরতদের কোয়ারেন্টাইন নিশ্চিত করার জন্য সকল ধরণের ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে। যারা সেচ্ছায় নিয়ম মানবেন না তাদেরকে মানতে বাধ্য করা হবে। 

পাঠকের মন্তব্য