সোনারগাঁয়ে গার্মেন্টস কর্মীকে ধর্ষণ, অভিযুক্তকে আদালতে প্রেরণ

সোনারগাঁয়ে গার্মেন্টস কর্মীকে ধর্ষণ, অভিযুক্তকে আদালতে প্রেরন

সোনারগাঁয়ে গার্মেন্টস কর্মীকে ধর্ষণ, অভিযুক্তকে আদালতে প্রেরন

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক গার্মেন্টস কর্মীকে ধর্ষনের অভিযোগে অজয় চন্দ্র দাস নামের এক যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। বুধবার রাতে মরিষটেক এলাকায় তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয় ।

গ্রেফতারকৃত অজয় চন্দ্র দাস জামপুর ইউনিয়নের মৈষটেক এলাকার নেপাল চন্দ্র দাসের ছেলে। এ ঘটনায় সোনারগাঁও থানায় মামলা দায়ের করা হয়েছে।

এ বিষয়ে তালতলা ফাঁড়ির ইনর্চাজ আহসান উল্লাহ জানান, ধর্ষনের শিকার গার্মেন্টস কর্মী উপজেলার নোয়াগাঁও ইউনিয়নের লাধুরচর গ্রামের বাসিন্দা।জানা যায়, সে জামপুর ইউনিয়নে মরিষটেক এলাকায় র্দীঘদিন ভাড়া বাসা নিয়ে বসবাস করে বিআর স্পিনিং মিলস লিমিটেড নামের এক শিল্প কারখানার একজন শ্রমিক হিসেবে কাজ করেন। সে সুবাদে ধর্ষক অজয় চন্দ্র দাসের সাথে গামের্ন্টস কর্মীর পরিচয় হয়।

এ সময় পুলিশ আরো জানায়, উভয়ের মধ্যে প্রেমের সর্ম্পক ছিল। বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে এক বছর ধরে বিভিন্ন স্থানে নিয়ে একাধিকবার ধর্ষন করে আসছিলো। পরে অজয় চন্দ্র দাসকে বিয়ের জন্য চাপ দিলে সে বিয়ে করবে না বলে অস্বীকৃতি জানায়। এ ঘটনায় বুধবার রাতে গামের্ন্টস কর্মী ধর্ষনের অভিযোগে অজয় চন্দ্র দাসকে আসামি করে সোনারগাঁ থানায় মামলা দায়ের করেন ওই ধর্ষিতা। পরে মারিষটেক এলাকায় অভিযান চালিয়ে তার ব্যবসা প্রতিষ্ঠান থেকে আটক করে পুলিশ। ওই গামের্ন্টস কর্মীকে ডাক্তারি পরিক্ষার জন্য বৃহস্পতিবার সকালে নারায়ণগঞ্জ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। গ্রেফতারকৃত ওই যুবককে দুপুরে নারায়ণগঞ্জ আদালতে পাঠানো হয়েছে।

পাঠকের মন্তব্য