করোনা ভাইরাস নিয়ে আবারও আলোচনায় অমিতাভ বচ্চন 

করোনা ভাইরাস নিয়ে আবারও আলোচনায় অমিতাভ বচ্চন 

করোনা ভাইরাস নিয়ে আবারও আলোচনায় অমিতাভ বচ্চন 

বৃহস্পতিবারই করোনা নিয়ে একটি ভিডিও শেয়ার করে অমিতাভ বচ্চন জানিয়েছিলেন, কীভাবে মাছিদের দ্বারা করোনা ছড়াতে পারে। “COVID-19 আক্রান্ত মানুষের মল-মূত্রে কয়েক দিন পর্যন্ত বেঁচে থাকতে পারে করোনা ভাইরাস। আর সেই মানব-মল থেকেই মাছি দ্বারা আরও মারাত্মক হারে ছড়িয়ে পড়তে পারে করোনা”, এমন মন্তব্য করতেই শোনা গিয়েছিল বলিউড অভিনেতা অমিতাভ বচ্চনকে। গৃহবন্দি অবস্থায় সোশ্যাল মিডিয়াতেই একটি ভিডিও পোস্ট করে এই বার্তা দেন তিনি। ভিডিওয় আন্তর্জাতিক মেডিক্যাল জার্নাল দ্য লেন্সেটের কথাও উল্লেখ করেছিলেন অমিতাভ। আর তাঁদের দাবি যদি সত্যি হয়, তাহলে ভারতের মতো দেশের জন্য তার পরিণাম যে যথেষ্ট ভয়ংকর হতে পারে সেকথা বলাই বাহুল্য।

অমিতাভের টুইটের পরই বিষয়টি নিয়ে মুখ খোলে ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়য়। যদিও তৃতীয় ধাপে করোনার ‘কমিউনিটি স্প্রেড’ নিয়ে এই দাবি চিনা বিশেষজ্ঞদের, ভিডিওতে জানান বিগ বি। তবে বিগ বি’র দাবি পুরোপুরি নস্যাৎ করে দিয়েছে স্বাস্থ্য মন্ত্রক। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের আধিকারিক লব অগরওয়াল জানিয়েছেন, তিনি নিজে অমিতাভের ওই ট্যুইট দেখেননি। তবে করোনা একটি সংক্রামক ব্যাধি। যা মাছি থেকে ছড়ায় বলে তাঁদের কাছে কোনও তথ্য নেই!
 
মোদির স্বচ্ছ ভারত মিশনের মুখ হওয়ার দৌলতে ভিডিওতে সেই প্রকল্পের কথা উল্লেখ করে অমিতাভ বলেন, “ঠিক যেমনটা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির হাত ধরে স্বচ্ছ ভারত মিশনের দৌলতে প্রত্যন্ত অঞ্চলের ভারতবাসীদের মাঠে-ঘাটে মলত্যাগ করা বন্ধ হয়েছে, ঠিক যেরকমটা শিশুদের দু’ফোঁটা পোলিওর সুবাদে পোলিও রোগমুক্ত হয়েছে ভারত, আমি অনুরোধ করব, করোনার বিরুদ্ধে জন আন্দোলন গড়ে তুলতে ঠিক সেরকমই যেন একসঙ্গে পদক্ষেপ করেন প্রত্যেকটি ভারতবাসী।“ “নিজের শৌচালয় ব্যবহার করুন,”, আরজি অমিতাভের। তবে কি আগের পোস্টের কালিমা ঘোঁচাতেই করোনা এই নয়া পোস্ট? অনেকেই কিন্তু এমন প্রশ্ন তুলেছেন। কারণ, জনতা কারফিউ নিয়ে একটি টুইটের জেরে তিনি কটাক্ষের শিকার হয়েছিলেন। এবার ফের মানব মল-মূত্র থেকে করোনা ভাইরাস ছড়ানোর বার্তা দিয়ে সমালোচনার মুখে পড়লেন অমিতাভ বচ্চন।

 “২২ মার্চ অমাবস্যা, সবথেকে অন্ধকার দিন। এই সময় ব্যাকটেরিয়া ও ভাইরাস আরও বেশি শক্তিশালী হয়ে ওঠে। হাততালি ও শঙ্খধ্বনি তাদের ক্ষমতা হ্রাস করে”, দিন দুয়েক আগেই করোনা নিয়ে এমন পোস্ট করে ট্রোলের শিকার হয়েছিলেন অমিতাভ বচ্চন। যদিও পরে নেটিজেনদের কটাক্ষের জেরে সেই পোস্ট সরিয়ে নিতে বাধ্য হয়েছেন। এবার চিনা বিশেষজ্ঞদের গবেষণায় উঠে আসা করোনা নিয়ে চাঞ্চল্যকর তথ্য শেয়ার করলেন বলিউড অভিনেতা।

পাঠকের মন্তব্য