বরিশালে সুদ খোরদের কাছে একটি পরিবার অবরুদ্ধ ও জিম্মি

বরিশালে সুদ খোরদের কাছে একটি পরিবার অবরুদ্ধ ও জিম্মি

বরিশালে সুদ খোরদের কাছে একটি পরিবার অবরুদ্ধ ও জিম্মি

বরিশাল সিটির ৩নং ওয়ার্ডের উওর কাউনিয়া হাউজিং এর পশ্চিম পাশে থাকেন মোঃ বিল্লাল হোসেন এলাকার প্রতিবেশি মিন্টু, রুবেল, বাবুল এদের থেকে ব্যাবসার জন্য সূদে টাকা নেয়, প্রতিমাসের শেষে লাভের টাকা নেয়ার ন্যায় গত ৩১/৩/২০২০ইং তারিখ তিন সুদ খোর লাভের টাকা চাইতে আসে বেল্লালের নিকট বেল্লাল বলে ভাই, করোনা ভাইরাসে দেশ লকডাউনের জন্য ব্যাবসা বানিজ্য বন্ধ টাকা কিভাবে দিব ? সুদ খোররা কোন কথা শুনতে রাজি না টাকার জন্য ৩১/৩/২০২০ ইং তারিখ থেকে টাকার জন্য চাপ দিতেই থাকে।  
 

বেল্লাল কোন উপায় না পেয়ে দেশের বাড়ী জমি বিক্রি করতে যায় যানবাহন বন্ধ বলে বিল্লাল বরিশাল আসতে পারছে না। এদিকে সুদ খোররা বিল্লালের বাসার সামনে একটি সাইন বোর্ড টানিয়ে দেয় বায়না সুত্রে এই জমির মালিক ১/ মিন্টু ২/রুবেল ৩/বাবুল, জে এল নং ৩৩. এস এ খতিয়ান নং ১১৭ দাগ নং ৮৭২ জমির পরিমান ৫ শতাংশ মোবাইল 01721*****7. বিল্লাল বাসায় না থাকায় তাঁর বাসার সদস্যের নিকট থেকে জানা যায়, বায়না সুত্রে জমির মালিক যারা দাবি করছে তাদের সাথে কোন বায়না বা চুক্তি হয়নি। এমন সুদখোর মোড়লদের এই এলাকায় ক্ষমতা ও দৌরত্বের কাছে সাধারন মানুষ জিম্মি, রিপোর্টটি সংগ্রহ করতে যাওয়ার সময় দু'জন সুদখোরকে দেখা যায়, মাথায় টুপি পড়ে মসজিদে যাচ্ছে। নামাজ পড়তে রিপোর্ট সংগ্রহের সময় তিন সুদ খোররের কাউকেই পাওয়া যায়নি।   

এলাকার নেতাদের মেনেজ করে সুদের ব্যাবসা করছে তাই তাদের ভয়ে কেউ মুখ খুলতে ভয় পায়, এমনকি সংবাদ প্রতিনিধিকে ভুয়া সাংবাদিক, দেখে নিবে এমন কথা ও এলাকায় বলে বেড়াচ্ছেন। 

পাঠকের মন্তব্য