গাজীপুরের পোশাক কারখানাগুলো ১১ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা 

গাজীপুরের পোশাক কারখানাগুলো ১১ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা 

গাজীপুরের পোশাক কারখানাগুলো ১১ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা 

বিজিএমই এবং বিকেএমই’র আহবানে সাড়া দিয়ে গাজীপুরে অধিকাংশ পোশাক কারখানা ১১ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি ঘোষণা করছে কর্তৃপক্ষ। রোববার (৫ এপ্রিল) সকালে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন গাজীপুর মেট্রোপলিটন সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলমগীর হোসন ভূঁইয়া।

তিনি জানান, এ থানা এলাকার পোশাক কারখানাগুলো ১১ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি দেয়া হয়েছে। কারখানা খোলা ভেবে রোববার সকালে শ্রমিকরা কর্মস্থলে গেলেও পরে ছুটির নোটিশ দেখে-জেনে বাসায় ফিরে যান। গাজীপুর সিটি করপোরেশনে বোর্ডবাজার কাথোরা এলাকার পাওয়ার টেক্স ফ্যাশন লিমিটেটে ফিনিশিং বিভাগে চাকুরি করেন মো. মাসুদুজ্জামান। তার বাড়ি ময়মনসিংহের মুক্তাগাছা এলাকায়।

তিনি জানান, কারখানা ৪ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি থাকায় গ্রামের বাড়িতে চলে গিয়েছিলেন। বৃহস্পতিবার ও শুক্রবার ফোন করে জানানো হয়েছিল যে, রোববার কারখানা খোলা থাকবে। তাই কাজে যোগ দিতে শনিবার রাতে বোর্ডবাজারের ভাড়া বাড়িতে ফেরেন তিনি। আজ সকালে অফিসে গিয়ে ১১ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটির নোটিশ দেখেন। পরে অন্যান্যদের মতো তিনিও ফিরে এসেছেন।

আশপাশের পোশাক কারখানাও ছুটি দিয়েছে বলেও জানান তিনি।

সিটি করপোরেশসের ভোড়া বাইপাস এলাকার কলম্বিয়া গার্মেন্ট লিমিটেডের প্রোডাকশন ম্যানেজার মো. ইউসুফ আলী জানান, এই কারখানাটি এমঅ্যান্ডজে গ্রুপের একটি প্রতিষ্ঠান। গাজীপুরে এ গ্রুপের আরো (শ্রীপুরের ভবানীপুর, সিটি করপোরেশনের তিনসড়ক, নাওজোড় এলাকার) ৪টি কারখানা রয়েছে। গতরাতে বিজিএমইর ঘোষণার পর কারখানা ছুটির সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী ৪টি কারখানাই ১১ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি দেয়া হয়েছে।

ইতোমধ্যে, মোবাইলে ম্যাসেজের মাধ্যমে যতটুকু সম্ভব শ্রমিকদের জানানো হয়েছে। এছাড়া, স্টাফদের বলে দেয়া হয়েছে শ্রমিকদের ছুটির বিষয়টি জানিয়ে দেয়ার জন্য। গাজীপুর শ্রীপুর উপজেলার বেড়াইদেরচালা এসকিউ সেলসিয়ান লিমিটেডের এডমিন এইচআর মো. রায়হানুল ইসলাম জানান, বিকেএমই’র সিদ্ধান্ত অনুসারে কারখানা ১১ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি দেয়া হয়েছে।

গাজীপুর শিল্প পুলিশের ইন্সপেক্টর মো. শহিদুল্লাহ জানান, অধিকাংশ কারখানা ১১ তারিখ পর্যন্ত ছুটি দেয়া হয়েছে। শ্রমিকরা সকালে কারখানায় এসে ছুটির খবর শুনে বাসায় চলে গেছেন। এলাকার সার্বিক পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে।

পাঠকের মন্তব্য