করোনা স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা : নিষেধ করায় সাংবাদিকের বাড়ি ভাংচুর 

করোনা স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা : নিষেধ করায় সাংবাদিকের বাড়ি ভাংচুর 

করোনা স্বাস্থ্যবিধি উপেক্ষা : নিষেধ করায় সাংবাদিকের বাড়ি ভাংচুর 

নারায়নগঞ্জের সোনারগাঁয়ে পূর্বশক্রতার জের ধরে দৈনিক আমাদের অর্থনীতি পত্রিকার সোনারগাঁ প্রতিনিধি মাজহারুল ইসলাম রাসেলের বাড়ি-ঘরে হামলা ও ভাঙচুরের ঘটনা ঘটেছে। বুধবার রাতে মোগরাপাড়া বাড়ি মজলিশ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় সোনারগাঁ থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

অভিযোগ সুত্রে জানা যায়, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ কার্যক্রম জোরদার করার লক্ষ্যে পুরো নারায়ণগঞ্জ জেলাকে লকডাউন ঘোষণা করেছেন আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদপ্তর। এমন পরিস্থিতিতে উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের বাড়ী চিনিস এলাকায় আঃ মান্নানের ছেলে মাসুম বিল্লাহ ও আঃ মোমেনের ছেলে ইমন মিয়াসহ ৪-৫ জনের একটি দল বুধবার রাত ৯ টার দিকে সাংবাদিক রাসেলের বাড়ির সামনে ঘুরাফেরা ও আড্ডা দেন। এসময় সরকারি সিদ্ধান্ত অমান্য করে অহেতুক ঘুরাফেরা ও আড্ডা দেওয়া নিষেধ করিলে তারা রাসেলের উপর ক্ষিপ্ত হয়। উত্তেজিত হয়ে  মাসুম বিল্লাহর নেতৃত্বে ইমন মিয়াসহ ৪-৫জনের একটি দল কাঠ ও বাঁশের লাঠিসোটাসহ দেশীয় অস্ত্রসন্ত্রে সজ্জিত হয়ে রাসেলের বাড়ি-ঘরে হামলা ও ভাঙচুর করেন।

এ ঘটনায় সোনারগাঁ থানায় রাসেল বাদী হয়ে একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

এ বিষয়ে মাজহারুল ইসলাম রাসেল জানান, বুধবার রাতে মাসুম বিল্লাহ ও ইমন মিয়াসহ কয়েক জন যুবক আমার বাড়ির গেইটের সামনে আড্ডা দিয়ে সিগারেট খাচ্ছিল। এসময় বাড়ি থেকে বের হয়ে তাদের নিষেধ করলে আমাকে গালিগালাজ করে প্রাণ নাশের হুমকি দেন। এতে প্রতিবাদ করলে তারা বাড়ি- ঘরে হামলা চালিয়ে ভাঙচুর করেন। অভিযুক্ত মাসুম বিল্লাহর সাথে যোগযোগ করার চেষ্টা করা হলে মোবাইল ফোনটি বন্ধ পাওয়া যায়।

সোনারগাঁ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মনিরুজ্জামান জানান, হামলার ঘটনা শুনে একটি লিখিত অভিযোগ নিয়েছি। তদন্ত করে আসামিদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহন করবো।

পাঠকের মন্তব্য