সেই ভিক্ষুককে ঘর তুলে দিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ 

সেই ভিক্ষুককে ঘর তুলে দিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ 

সেই ভিক্ষুককে ঘর তুলে দিতে প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ 

সঞ্চয়ের ১০ হাজার টাকা করোনা তহবিলে দান করা সেই ভিক্ষুককে ঘর তুলে দেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সন্ধ্যায় তাকে নিয়ে প্রচারিত সংবাদটি প্রধানমন্ত্রীর নজরে আসে। এরপরই তিনি প্রয়োজনীয় সব নির্দেশ দেন।

এ বিষয়ে শেরপুর জেলার ঝিনাইগাতি উপজেলার ইউএনও রুবেল মাহমুদকে ফোন দেন প্রধানমন্ত্রীর ব্যক্তিগত সচিব। সেই নির্দেশ অনুযায়ী রাতেই ভিক্ষুক নজিম উদ্দীনের বাড়ি যান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুবেল মাহমুদ।

তিনি জানান, জীর্ণ ভাঙ্গা ঘর তার। এখনও কুপি বাতি দিয়ে চলে। রাতের মধ্যেই ঘর তৈরির বিষয়ে সম্ভাব্য সব তথ্য তৈরি করে তিনি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে পাঠাবেন। একই সঙ্গে সামাজিক নিরাপত্তা বেষ্টনীর আওতায় প্রয়োজনীয় সহযোগিতাও দেবে সরকার।

উল্লেখ্য, করোনা দুর্যোগের মধ্যে হতদরিদ্রদের সহায়তার জন্য উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নেতৃত্বে তালিকা করছিলেন একটি স্বেচ্ছাসেবক দলের সদস্যরা। ভিক্ষুক নজিম উদ্দীনের বাড়িতে স্বেচ্ছাসেবকরা গেলে তিনি জানতে চান কেনো এই তালিকা? জানতে পারেন, সরকারের খাদ্য ও অর্থ সহায়তা দেয়ার জন্য এ তালিকায় তার নাম দেওয়া হবে। নজিম বলে ওঠেন, আগে মানুষের জীবন বাঁচুক। এই বলে তিনি ঘর তোলার জন্য জমানো দশ হাজার টাকার পুরোটাই তুলে দেন বিপদগ্রস্ত মানুষের কল্যাণে। বিষয়টি হতবাক করে তোলে ইউএনও, স্বেচ্ছাসেবক দলসহ উপস্থিত সবাইকে। পরে এনিয়ে যমুনা টেলিভিশনসহ বিভিন্ন মিডিয়া সংবাদ প্রচার করে।

পাঠকের মন্তব্য