ঢাকায় বসেও কলাপাড়া-রাঙ্গাবালীতে খাদ্যসামগ্রী পৌছাচ্ছেন যুবলীগ নেতা 

ঢাকায় বসেও কলাপাড়া-রাঙ্গাবালীতে খাদ্যসামগ্রী পৌছাচ্ছে যুবলীগ নেতা 

ঢাকায় বসেও কলাপাড়া-রাঙ্গাবালীতে খাদ্যসামগ্রী পৌছাচ্ছে যুবলীগ নেতা 

রাসেল মোল্লা কলাপাড়া (পটুয়াখালী) প্রতিনিধি : নভেল করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে মানুষ যখন লকডাউনে ঘরে তখন কর্মহীন, অসহায় ও দরিদ্র মানুষের পাশে খাদ্য সহায়তা নিয়ে হাজির হয়েছেন বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের কেন্দ্রীয় কার্যনির্বাহী কমিটির সদ্যবিদায়ী সহ-সম্পাদক কলাপাড়ার কৃতি সন্তান এ্যাডভোকেট শামীম আল সাইফুল সোহাগ।

তিনি কুয়াকাটা সমুদ্র উপকুলীয় এলাকাসহ কলাপাড়া ও রাঙ্গাবালী উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নের কর্মহীন দরিদ্র নিম্ন মধ্যবিত্ত পরিবারের মাঝে নিজ হাতে খাদ্যসামগ্রী পৌছে দিচ্ছেন। ১০দিন ধরে এলাকায় অবস্থান করে এসব খাদ্য সহায়তা দিয়ে গত সপ্তাহে ঢাকা চলে গেছেন। সেখান থেকে নিজ দলীয় নিম্ন মধ্যবিত্ত নেতাকর্মীদের পরিচয় গোপন রেখে কলাপাড়া উপজেলা বিভিন্ন ইউনিয়নে তার প্রতিনিধি দিয়ে নেতাকর্মীদের বাড়িতে তার উপহার পৌঁছে দিচ্ছে। 
 
এমনকি কলাপাড়া-রাঙ্গাবালীর কর্মহীন, অসহায় ও দরিদ্র মানুষের ফোন পেলেই তাৎক্ষনিক ব্যবস্থা নিচ্ছেন তিনি। এ উপহারের তালিকায় রয়েছে চাল ১০কেজি, আলু ৫ কেজি, ডাইল ১কেজি, পিয়াজ ২কেজি, তেল ১কেজি, লবন ১কেজি, সাবান সহ-নানা ধরনের খাদ্য সামগ্রী উপহার।
 
কথা হয় এ্যাডভোকেট শামীম আল সাইফুল সোহাগ এর সাথে তিনি বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশে এবং বাংলাদেশ আওয়ামীযুবলীগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক শেখ ফজলে শামস পরশ ও সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ মাইনুল হোসেন খান নিখিল ভাই এর আহবানে মহামারি করোনায় কর্মহীন কলাপাড়া, কুয়াকাটা ও রাঙ্গাবালীর সাধারন মানুষের কাছে খাদ্যসামগ্রী বিতরণ করে গত সপ্তাহে ঢাকায় এসেছি। এসে শুনি কলাপাড়া ও রাঙ্গাবালী উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়নে আমাদের দলীয় নিম্ন মধ্যবিত্ত নেতাকর্মী (মুজিব প্রেমী) পরিবারগুলো অসহায় অবস্থায় আছে তাই আমার সাধ্য মত আমার প্রতিনিধি দিয়ে তাদের বাড়ি বাড়ি গিয়ে তাদের পরিচয় গোপন রেখে উপহার পৌঁছে দেওয়ার ব্যবস্থা করছি মাত্র।

তিনি আরও বলেন, আমি আপনাদের মাধ্যমে আমাদের দলীয় বিত্তবান নেতাদের অসহায় কর্মহীন কর্মীদের ও দরিদ্র মানুষের পাশে এসে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেওয়ার জন্য অনুরোধ করছি।

পাঠকের মন্তব্য