ত্রাণ চাইতে গিয়ে নেতার যৌন নিপীড়নের শিকার 

ত্রাণ চাইতে গিয়ে নেতার যৌন নিপীড়নের শিকার 

ত্রাণ চাইতে গিয়ে নেতার যৌন নিপীড়নের শিকার 

লক্ষ্মীপুরে ত্রাণ চাইতে গিয়ে যৌন নিপীড়নের শিকার হয়েছেন এক নারী।

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার চররুহিতা ইউনিয়নে বসবাস করেন খানু বেগম। স্বামীর মৃত্যুর পর থেকেই তিন মেয়ে ও এক ছেলে নিয়ে দারিদ্রের সাথে প্রতিনিয়ত যুদ্ধ করছেন। করোনার প্রভাবে এখন আরো বিপর্যস্ত তিনি।

ভুক্তভোগীর অভিযোগ, ত্রাণ দেয়ার খবরে স্থানীয় আওয়ামী লীগ নেতা শাহজান ওরফে কালুমুন্সীর বাড়িতে যান তিনি। এসময় তাকে কু-প্রস্তাব দেয়া হয়। পরে আবার ত্রাণের কথা বলে বাড়িতে ডেকে শ্লীলতাহানি করা হয়।  

ঘটনার পর লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানায় অভিযোগ করেছেন ভুক্তভোগী। তবে কালু মুন্সির ভয়ে পালিয়ে বেড়াচ্ছেন তিনি। এসব অভিযোগ অস্বীকার করে কালু মুন্সি বলেন, এগুলা সব মিথ্যা আমার বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করে আমাকে ফাঁসানোর  চেষ্টা করা হচ্ছে

এদিকে, তিনি ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের কোন পদে নেই বলে জানালেন ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক  মোজাম্মেল হোসেন ফিরোজ।

তিনি বলেন, কালু মুন্সি আগে ৫নং ওয়ার্ড ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। গত ছয় মাস পূর্বে উক্ত কমিটির মেয়াদ উত্তীর্ণ হওয়ায় কমিটি বিলুপ্তি ঘোষনা করা হয়েছে।

লক্ষ্মীপুর সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা এ কে এম আজিজুর রহমান জানান, তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে। আসলে ঘটনাটা কি? বাস্তবে কি নিয়ে এই ঘটনা সেটা জানা দরকার।

পাঠকের মন্তব্য