গৌরনদীতে বৃদ্ধার বয়স্ক ভাতা তুলে ইউপি সদস্যের আত্মসাৎ

গৌরনদীতে বৃদ্ধার বয়স্ক ভাতা তুলে ইউপি সদস্যের আত্মসাৎ

গৌরনদীতে বৃদ্ধার বয়স্ক ভাতা তুলে ইউপি সদস্যের আত্মসাৎ

তিন বছর ধরে এক বৃদ্ধার বয়স্ক ভাতা তুলে আত্বসাত করার অভিযোগ পাওয়া গেছে এক ইউপি সদস্যের বিরুদ্ধে। জানা গেছে, বরিশালের গৌরনদী উপজেলার শরিকল ইউনিয়নের ১ নং ওয়ার্ডের মৃত.বসু মীরের স্ত্রী আনোয়ারা বেগমের নামে বয়স্ক ভাতার একটি কার্ড থাকলেও কোন দিন সে তার প্রাপ্য টাকা তুলতে পারেন নি বরং, টাকা পাবার আগ মূহুর্তেই স্থানীয় ইউপি সদস্য ফারুক সরদার তার বইটি নিয়ে যেতেন এবং টাকা আসেনি বলে জানাতেন। গত ররিবার শাহাজিরা স্থানীয় একটি বিদ্যালয় মাঠে বয়স্ক ভাতা সুবিধাভোগীদের মধ্যে টাকা প্রদান করা হয়। এ সময় আনোয়ারা বেগম টাকা আনার জন্য যান।

আনোয়ারা বেগম আভিযোগ করে বলেন, আমি রোজা মানুষ সকাল ৯টা থেকে সারাদিন রোদে দাড়িয়ে থাকি আমার বইটি যখন জমা দিব ঠিক তার আগে মেম্বার ফারুক সরদার বলেন আমার টাকা আসেনি। এই বলে তিনি আমার বইটি নিয়ে যান। এইসব দেখে লোকজন আমার বই মেম্বারে (ফারুক সরদার) নেয়ার কারন জিজ্ঞাসা করলে আমি বিষয়টি সবাইকে বলি এবং তখন জানতে পারি তিন বছর থেকেই মেম্বারে আমার টাকা উত্তোলন করে আসছেন।

এ ঘটনায় এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হলে ঘটনাটি ধামা চাপা দেয়ার জন্য মরিয়া হয়ে উঠেছে ইউপি সদস্য ও তার সহযোগীরা। গভীর রাতে ইউপি সদস্য ফারুক সরদার ও তার সহযোগীরা তাকে (আনোয়ারা বেগম) ভয় ভীতি দেখিয়ে চেক ও ভাতার বই এবং সাথে কিছু টাকা ফেরত এবং বিভিন্ন প্রকার হুমকি ধামকি প্রদান করে বলেও অভিযোগ করেন আনোয়ারা বেগম।

অভিযুক্ত ইউপি সদস্য ফারুক সরদার সাংবাদিকদের জানান, আনোয়ারা বেগম নামে দুই জন থাকায় একটু এলোমেলো হয়েছে পরবর্তীতে রাতে তার বাসায় গিয়ে টাকা দিয়ে এসেছি।

পাঠকের মন্তব্য