মোজাম্মেল হক নিয়োগী এর কবিতা : “ঘরবন্দি ২”

মোজাম্মেল হক নিয়োগী এর কবিতা : “ঘরবন্দি ২”

মোজাম্মেল হক নিয়োগী এর কবিতা : “ঘরবন্দি ২”

“ঘরবন্দি ২”
মোজাম্মেল হক নিয়োগী

শিশুর মতো হামাগুড়ি দিয়ে দাঁড়াতে গিয়েও থেমে যাই

মাঝে মাঝে বাইরের দরজা দিয়ে তাকিয়ে দেখি বিষন্ন আকাশ

শোকে মুহ্যমাম মরা রোদ্দুর বুকে নিয়ে কোনো রকম আছে

এমন নিরানন্দ আকাশ কখনো দেখিনি অরুণিমা

মানুষ কি এভাবে বাঁচতে পারে রুদ্ধদ্বার গৃহে সঙ্গহারা

কবোষ্ণ প্রেমহীন শিথিল বসন্তের আর্তনাদ বুকে বেঁধেছে বাসা।

এই শহরের রাতের দৃশ্যাবলি তুমি কি লক্ষ করেছো অরুণিমা ?

মানুষের বুকের ভেতরের কষ্টের বহতা নদী ?

শহরের পথগুলো যেন নিদ্রামগ্ন হিম অজগরের মতো ভয়ঙ্কর নীরবতা

মৃত্যুদূত থাবা মেলে আছে, লাশের হিসাবে মিটারে পারদের ঊর্ধ্বগতি

মৃত্যুদণ্ডপ্রাপ্ত আসামির মতো মৃতপ্রায় পড়ে আছি কনডেম সেলে।

দিন গুনি, দিনের শেষে রাত, মাস শেষ হলে পঞ্জিকার পাতা বদলাই

খবরের পর খবর... অধীর প্রতীক্ষা... কোনো সুখবর যদি মিলে

কত গেল, কত যাবে এমন মৃত্যুর হিসাব মানুষ কি কখনো করে ?

আমরা তাই করছি আর ভেতরে ভেতরে রক্তাক্ত হচ্ছি

করুণ অশ্রুতে সিক্ত হচ্ছে আত্মার কোণ।

এভাবে কতদিন বেঁচে থাকা যাবে অরুণিমা ?

কখন দেখা হবে বসন্তের উষ্ণতায় ?

পাঠকের মন্তব্য