কুতুবদিয়ায় জমি বিরোধ নিয়ে সংঘর্ষে উভয় পক্ষের আহত -৭

কুতুবদিয়ায় জমি বিরোধ নিয়ে সংঘর্ষে উভয় পক্ষের আহত -৭

কুতুবদিয়ায় জমি বিরোধ নিয়ে সংঘর্ষে উভয় পক্ষের আহত -৭

জমি বিরোধ নিয়ে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে সংঘর্ষে উভয় পক্ষের আহত হয়েছে ৭জন। আহতরা হচ্ছে কুতুবদিয়া দ্বীপের লেমশীখালী ইউনিয়নের করলা পাড়ার মৌলভী আহমদ হোছাইনের ছেলে মোঃ জাহাঙ্গির আলম (৪৫) মোঃ  এমরান (৩৮) , মোঃ হান্নান (৪০) মোঃ মালেক (৩২)। প্রতিপক্ষ একই এলাকার মোঃ হোছাইনের ছেলে রমিজ আলম (৪৫) ফজল করিম (৪৩)  শফিকুল ইসলাম (৩৫) রমিজের স্ত্রী পারভীন আকতার (৩৮) গুরুতর আহত হয়। আহতদের প্রতিবেশীরা উদ্ধার করে কুতুবদিয়া সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করেন।
 
প্রত্যক্ষদর্শী সূত্রে জানা গেছে, বুধবার (২০ মে) সকাল ১০টায়  লেমশীখালী করলা পাড়া এলাকায় জমি বিরোধের জের ধরে র্পূব শত্রুতায় রমিজের সাথে মোঃ জাহাঙ্গিরের কথা কাটাকাটি হয়। এক পর্যায়ে মারামারিতে লিপ্ত হয়। এ খবর পেয়ে উভয় পক্ষের আত্মীয়স্বজন উদ্ধার করতে গেলে তারা সংঘর্ষে লিপ্ত হয়ে পড়ে।  এ সময় উভয় পক্ষের ৭ জন গুরুতর জখম হয়।

এ ব্যাপারে আহত রমিজের সাথে কথা হলে তিনি জানান, জাহাঙ্গির আলমের সাথে অনেক দিন ধরে জমি নিয়ে বিরোধ চলে আসছে। গত তিনদিন পূর্বে স্থানীয় সালিশের মাধ্যমে বিরোধকৃত জমি রমিজকে ফেরত দিতে হয়। তখন থেকেই ক্ষোভে কাজ করে। 

অপর দিকে মোঃ জাহাঙ্গির আলম বলেন, তারা একে অপর আপন চাচাত ভাই। জমি বন্টন নিয়ে বিরোধ চলছে দীর্ঘদিন ধরে। এ বিরোধের জের ধরে জাহাঙ্গিরকে পথের মধ্যে একলা পেয়ে মারধর করে। তখন অন্যান্যরা এগিয়ে এলে তাদেরও মারধর করে। 

স্থানীয় মেম্বার ইসহাক ঘটনার সত্যতা শিকার করেন। ঘটনার বিষয়ে উভয় পক্ষ পৃথক পৃথক কুতুবদিয়া থানায় এজাহার জমা করেন।

পাঠকের মন্তব্য