কান্নার আহাজারিতে ভারী হয়ে উঠেছে গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে থানা

কান্নার আহাজারিতে ভারী হয়ে উঠেছে গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে থানা

কান্নার আহাজারিতে ভারী হয়ে উঠেছে গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে থানা

পলাশবাড়ীতে দূর্ঘটনায় নিহতদের মরদেহ শনাক্ত করতে গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে থানায় ছুটে এসেছেন স্বজনরা। স্বজনদের কান্নার আহাজারিতে ভারী হয়ে উঠেছে গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে থানা এলাকা। এদিকে জানা গেছে গাইবান্ধা জেলা প্রশাসক মহোদয় দূর্ঘটনা স্থল পরিদর্শন করে মরদেহ সৎকাদের জন্য প্রতিজনে ১০ হাজার করে টাকা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন। 

উল্লেখ্য গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে রডবোঝাই ট্রাক উল্টে ১৩ জন নিহত হয়েছেন। আজ বৃহস্পতিবার (২১মে) পলাশবাড়ী উপজেলার  সকালে রংপুর- ঢাকা মহাসড়কের দুবলাগাড়ী এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রডবোঝাই একটি ট্রাকে ট্রিপল দ্বারা ঢেকে কিছু যাত্রী ঢাকা থেকে রংপুরের দিকে যাচ্ছিল।যাওয়ার পথে ট্রাকটি দুবলাগাড়ী এলাকায় পৌছিলে ট্রাকটি নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে সড়কের পাশে খাদে  উল্টে যায়। এসময় রডের নীচে চাপা পড়ে ১৩ যাত্রী নিহত হন।এর মধ্যে ৩জন শিশু, একজন বৃদ্ধ ও ৮জন যুবক রয়েছে। 

পরে গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে থানা পুলিশ ও গোবিন্দগঞ্জের ফায়ার সার্ভিসের কর্মীরা লাশগুলো উদ্ধার করে গোবিন্দগঞ্জ হাইওয়ে থানায় নিয়ে আসে।এদিকে বিভিন্ন গণমাধ্যমে খবর পেয়ে মৃত্যু ব্যাক্তিদের স্বজনরা থানায় ছুটে এসেছেন। এখন মরদেহের পরিচয় শনাক্তের প্রক্রিয়া চলছে। 

পাঠকের মন্তব্য