করোনাক্রান্ত শুনে মাকে বাড়িতে ঢুকতে দিলো না ছেলে

করোনাক্রান্ত শুনে মাকে বাড়িতে ঢুকতে দিলো না ছেলে

করোনাক্রান্ত শুনে মাকে বাড়িতে ঢুকতে দিলো না ছেলে

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন মা, এ কথা জানার পর ঢাকা থেকে বাড়ি যাওয়া মাকে ঢুকতেই দেয়নি ছেলে। এমনকি বাড়ির গেটে তালা দিয়েছে সে। কোনো উপায় না পেয়ে আবারো ঢাকায় মেয়ের বাসায় ফিরছিলেন ওই মা। পরে স্থানীয় প্রশাসন তাকে হাসপাতালে ভর্তি করে। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে মেহেরপুর শহরের তিন নম্বর ওয়ার্ডের তাতিপাড়ায়।

জানা যায়, দীর্ঘদিন ধরে ঢাকায় মেয়ের বাসায় ছিলেন মেহেরপুরের তাতিপাড়ার প্রয়াত গোপীনাথ সাহার স্ত্রী পুষ্প রানী সাহা নামের ওই নারী। সম্প্রতি তিনি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হন। এর পর তিনি একটি প্রাইভেটকার ভাড়া করে গ্রামের বাড়ি যান। কিন্তু তার ছেলে মানস কুমার সাহা তাকে বাড়িতে ঢুকতে দেয়নি। উল্টো তালা ঝুলিয়ে দেয়, যাতে তিনি বাড়িতে প্রবেশ করতে না পারেন।

এর পর নিজ বাড়ির সামনেই কিছুক্ষণ অবস্থান করেন পুষ্প রানী। এক পর্যায়ে ঢাকা থেকে যাওয়া সেই গাড়িতে করেই ঢাকায় ফেরার সিদ্ধান্ত নেন। পরে মেহেরপুরের ট্রাফিক পুলিশ সদস্যরা খবর পেয়ে তাকে হাসপাতালে ভর্তি করেন।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বর্তমানে মেহেরপুরের ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি আছেন পুষ্প রানী সাহা। হাসপাতালের চিকিৎসকরা জানান, তিনি আইসোলেশনে আছেন।

পাঠকের মন্তব্য