নমুনা পরীক্ষার হারে বাংলাদেশের অবস্থান সর্বনিম্নে

নমুনা পরীক্ষার হারে বাংলাদেশের অবস্থান এখন সর্বনিম্নে

নমুনা পরীক্ষার হারে বাংলাদেশের অবস্থান এখন সর্বনিম্নে

দেশে নমুনা পরীক্ষা যত বাড়ানো হচ্ছে, শনাক্তও হচ্ছে তত বেশি। বর্তমানে প্রতিদিন কমবেশি ১০ হাজার নমুনা পরীক্ষা করা হলেও অন্যান্য দেশের তুলনায় এটি অনেক কম। অথচ আক্রান্তের দিক থেকে বাংলাদেশ এখন বিশ্বের ২১তম অবস্থানে ও দক্ষিণ এশিয়ার মধ্যে শীর্ষ তিনে। বিশেষজ্ঞরা বলছেন, অন্যান্য দেশের সঙ্গে তাল মিলিয়ে নমুনা পরীক্ষার হার বাড়ালে টের পাওয়া যাবে দেশের ভয়ংকর অবস্থা।

করোনায় আক্রান্ত শীর্ষ ২৫ দেশের মধ্যে নমুনা পরীক্ষার হারে বাংলাদেশের অবস্থান সর্বনিম্নে। প্রতি ১০ লাখ মানুষের মধ্যে দেশে নমুনা পরীক্ষা হয়েছে এক হাজার ৯৫১ জনের। বাকি ২৪ দেশের কোনোটিতেই প্রতি ১০ লাখে ২ হাজারের কম মানুষের নমুনা পরীক্ষা করা হয়নি। ভারতে প্রতি ১০ লাখে নমুনা পরীক্ষা করা হচ্ছে ২ হাজার ৭৮৩ জনের এবং পাকিস্তানে করা হচ্ছে ২ হাজার ৫৪৫ জনের।

ওদিকে নমুনা পরীক্ষার তুলনায় আক্রান্তের হারে বাংলাদেশ ছাড়িয়ে গেছে শীর্ষ আক্রান্ত অনেক দেশকে। পরিসংখ্যান বিশ্লেষণ করে দেখা গেছে, গত ১৪ দিনে প্রতি ১০ লাখে বাংলাদেশে রোগী শনাক্ত হয়েছে ১৫৬ জন। একই সময়ের মধ্যে প্রতি ১০ লাখে পাকিস্তানে আক্রান্ত হয়েছেন ১৩৮ জন এবং ভারতে ৬৯ জন।

গতকাল পর্যন্ত বাংলাদেশে প্রতি ১০০ জনের নমুনা পরীক্ষার আক্রান্তের হার ১৫ দশমিক ৪৬ শতাংশ (গত ১৪ দিনে প্রায় ১৯ শতাংশ)। অন্যদিকে ভারতে প্রতি ১০০ নমুনা পরীক্ষায় রোগী পাওয়া গেছে ৪ দশমিক ৯৯ শতাংশ এবং পাকিস্তানে ১২ দশমিক ৯১ শতাংশ।

পাঠকের মন্তব্য