গণপরিবহনে বেশি ভাড়া আদায়কারীরা গণদুশমন

গণপরিবহনে বেশি ভাড়া আদায়কারীরা গণদুশমন : সেতুমন্ত্রী

গণপরিবহনে বেশি ভাড়া আদায়কারীরা গণদুশমন : সেতুমন্ত্রী

সরকারকে প্রতিশ্রুতি দিয়েও যারা গণপরিবহনে অতিরিক্ত ভাড়া আদায় করছে, তারা গণদুশমন হিসেবে চিহ্নিত হবে বলে মন্তব্য করেছেন সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের।

মঙ্গলবার জাতীয় সংসদ ভবন এলাকায় নিজের সরকারি বাসভবন থেকে এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা ক্ষমতাসীন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক।

তিনি বলেন, করোনা কালীন গণপরিবহনে ভাড়া পুনর্বিন্যাসে চট্টগ্রামসহ কয়েকস্থানে অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে। অতিরিক্ত ভাড়া যারা আদায় করে তারা এই সংকটে গণদুশমন বলে পরিচিত হবে। তারা জনগণের কাছে গণদুশমন হিসেবে চিহ্নিত হবে। এই সংকটে তারা সরকারকে দেয়া প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করে সাধারণ মানুষের উপর অতিরিক্ত ভাড়া চাপাচ্ছে। প্রতিশ্রুতি রক্ষা করে যারা ভাড়া আদায় করছেন তাদের অভিনন্দন জানাই। যারা প্রতিশ্রুতি ভঙ্গ করছেন তাদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা প্রয়োগ করার জন্য আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রতি আহ্বান জানাচ্ছি।

মহামারীর মধ্যে স্বাস্থ্যবিধি মানাসহ অর্ধিক যাত্রী পরিবহনের শর্তে গণপরিবহন চালানোর অনুমতি দিয়েছে সরকার। এজন্য মালিকদের ক্ষতি পোষাতে ৬০ শতাংশ ভাড়া বাড়ানো হলেও অতিরিক্ত ভাড়া আদায়ের অভিযোগ পাওয়া যাচ্ছে।

অতিরিক্ত ভাড়ার অভিযোগ প্রমাণিত হলে সড়ক পরিবহন আইনানুযায়ী ডাম্পিংসহ কঠোর আইনগত ব্যবস্থা নিতে সংশ্লিষ্টদের আহ্বান জানান ওবায়দুল কাদের।

আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বলেন, বিএনপির মহাসচিব মির্জা ফখরুল অভিযোগ করেছেন সারাদেশে তাদের দলের নেতাকর্মীদের ঢালাওভাবে গ্রেপ্তার করা হচ্ছে। আমি বলতে চাই কোথায়, কাদেরকে গ্রেফতার করা হল তার তালিকা দিন। কোথায় মিথ্যা মামলা দেয়া হচ্ছে স্পেসিফিক তথ্য দিন। রাজনৈতিক অশুভ উদ্দেশ্যে সত্যকে আড়াল করে অন্ধকারে ঢিল ছুড়বেন না। মানুষের ক্ষুধার হাহাকার আপনারা কোথায় দেখতে পাচ্ছেন? আসলে আপনাদের হৃদয়েই ক্ষমার ক্ষুধা। সেই ক্ষুধার তীব্রতায় আপনাদের হৃদয়ে হাহাকার করছে। জনমানুষের প্রতি সরকারের দায়িত্বশীলতায় আপনাদের গা-জ্বালা করছে।

তিনি বলেন, সরকার সংক্রমণ রোধে নতুন কিছু সিদ্ধান্ত নিতে যাচ্ছে। সংক্রমিত এলাকা সমূহকে সংক্রমণের মাত্রা অনুযায়ী বিভিন্ন জোনে ভাগ করা হচ্ছে। আরোপ করা হচ্ছে কড়াকড়ি। আমি সকলকে ধৈর্যর সাথে সরকারের গাইডলাইন প্রতিপালনের আহ্বান করছি।

ওবায়দুল কাদের বলেন, সরকারের সামনে এখন দুটি চ্যালেঞ্জ। একদিকে করোনা সংক্রমণ রোধ ও আক্রান্তদের চিকিৎসা। অপরদিকে করোনাজনিত অসহায় দরিদ্র মানুষের সুরক্ষা। কিছু সীমাবদ্ধতা সত্বেও এই চ্যালেঞ্জ উত্তরণে শেখ হাসিনা সরকার নিরলস কাজ করে যাচ্ছে। এই প্রচেষ্টায় জনগণের আস্থা রয়েছে। শুধু মিথ্যাচার করছে বিএনপি। বিএনপিকে বলব, সরকারকে ঠেকাতে গিয়ে দেশকে ঠেকাতে যাবেন না। সরকারের সস্তা সমালোচনা না করে রাজনৈতিক দল হিসেবে নিজেদের দায়িত্বশীল ভূমিকার কথা স্মরণ করুন।

পাঠকের মন্তব্য