খোঁজ মিললো করোনা ভাইরাসের জীবনরক্ষাকারী ওষুধের 

খোঁজ মিললো করোনা ভাইরাসে জীবনরক্ষাকারী ওষুধের 

খোঁজ মিললো করোনা ভাইরাসে জীবনরক্ষাকারী ওষুধের 

করোনায় আক্রান্ত হয়ে গুরুতর অসুস্থ হয়ে পড়া রোগীদের জন্য জীবনরক্ষাকারী একটি ওষুধের খোঁজ মিলেছে। ব্রিটিশ স্বাস্থ্য বিশেষজ্ঞদের দাবি, ডেক্সামিথাসোন নামের স্টেরয়েড করোনায় আক্রান্তদের শরীরে প্রয়োগের মধ্য দিয়ে দারুণ সাফল্য পাওয়া গেছে! এটি ভেন্টিলেশনে থাকা রোগীদের মৃত্যু ঝুঁকি এক তৃতীয়াংশ কমায়। আর অক্সিজেন সাপোর্টে থাকা রোগীদের ক্ষেত্রে এ ওষুধ মৃত্যু ঝুঁকি কমায় এক পঞ্চমাংশ। ব্রিটিশ সংবাদমাধ্যম বিবিসি আরো জানিয়েছে, ওষুধটি সহজলভ্য ও সাশ্রয়ী। 

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, বিশ্বের দরিদ্র দেশগুলোতে করোনায় আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসায় এই ওষুধ বড় সহায়ক ভূমিকা রাখতে সক্ষম। যেসব দেশ রোগীদের সামলাতে হিমশিম খাচ্ছে এটা তাদের জন্য বড় সুখবর।

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগীদের মধ্যে সংকটাপন্নদের ভেন্টিলেটর ও অক্সিজেনের প্রয়োজন পড়ে। তাদেরকে ঝুঁকিপূর্ণ রোগী হিসেবে বিবেচনা করা হয়। ব্রিটিশ গবেষকরা বলছেন, এসব রোগীর ক্ষেত্রে সহায়ক ভূমিকা রাখতে পারে ডেক্সামিথাসোন।

তবে, ওষুধটি শুধু মাত্র হাসপাতালে থাকা গুরুতর রোগীদের ক্ষেত্রে চিকিৎসকদের পরামর্শ অনুযায়ী ব্যবহার করা যাবে। শরীরের এই ওষুধের বাড়তি প্রতিক্রিয়া হলে রোগীর মৃত্যু হতে পারে।

১৯৬০ এর দশক থেকে যুক্তরাজ্যে রিউমাটয়েড আর্থ্রাইটিস ও অ্যাজমাসহ বিভিন্ন সমস্যায় ডেক্সামিথাসোন প্রয়োগ করে আসা হচ্ছে। সম্প্রতি অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের গবেষকদের নেতৃত্বে হাসপাতালে থাকা দুই হাজার করোনা রোগীর শরীরে এ ওষুধ প্রয়োগ করে পরীক্ষা চালানো হয়। এতে দেখা গেছে, ভেন্টিলেশনে থাকা রোগীদের মৃত্যু ঝুঁকি ৪০ শতাংশ থেকে কমে হয়েছে ২৮ শতাংশ । আর অক্সিজেনে থাকা রোগীদের ক্ষেত্রে মৃত্যু ঝুঁকি ২৫ শতাংশ থেকে কমে ২০ শতাংশ হয়েছে।

পাঠকের মন্তব্য