করোনায় সচেতনতা বাড়াতে মাঠে নেমেছেন স্বয়ং মিস্টার বিন 

করোনায় সচেতনতা বাড়াতে মাঠে নেমেছেন স্বয়ং মিস্টার বিন 

করোনায় সচেতনতা বাড়াতে মাঠে নেমেছেন স্বয়ং মিস্টার বিন 

এবার হাসতে হাসতেই রুখে দেওয়া যাবে করোনা ভাইরাসকে। কারণ, সচেতনতা বাড়াতে মাঠে নেমেছেন স্বয়ং মিস্টার বিন (Mr. Bean)। কীভাবে এই মারণ জীবাণুর মোকাবিলা করবেন, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার গুরুত্ব, এসব কথা মনে করিয়ে দেবেন তিনি।

গত বছরের গোড়ার দিকে আত্মপ্রকাশ করার পর করোনা ভাইরাস রুখতে সেই অর্থে কোনও ওষুধের খোঁজ মেলেনি। আপাতত এই রোগের বিরুদ্ধে সবথেকে বড় হাতিয়ার হচ্ছে সচেতনতা। সেই কথা মাথায় রেখেই এবার মিস্টার বিনের চরিত্রাভিনেতা রোয়ান অ্যাটকিনসনের কণ্ঠ এবং কার্টুন ব্যবহার করছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)। সংস্থার নয়া সচেতনতামূলক বিজ্ঞাপনে হাত ধোওয়া, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখার গুরুত্বের কথা মনে করিয়ে দিচ্ছেন বিন। পাশাপাশি, করোনা আবহে প্রতিবেশীর প্রতি দৃষ্টিভঙ্গি কেমন হওয়া উচিত, তাও জানাচ্ছেন তিনি। বিজ্ঞাপনে তাঁর বার্তা, প্রতিবেশীদের প্রতি সদয় হোন, তাঁদের সঙ্গে যোগাযোগ রাখুন।

এদিকে, করোনা মহামারীর দাওয়াই না মিললেও, বিশ্বজুড়ে শুরু হয়েছে আনলক পর্ব। এর ব্যতিক্রম নয় ভারতও। ফলে লাফিয়ে বাড়ছে করোনা সংক্রমণ। সঙ্গে বৃদ্ধি পাচ্ছে মৃতের সংখ্যাও। এহেন পরিস্থিতিতে সতর্কবার্তা দিয়েছে WHO। লকডাউন তুলে দিলে মারাত্মক ফল হতে পারে বলে মনে করছে সংস্থাটি। বিশ্বে এখন করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৯২ লক্ষ ২০ হাজার ৩০০। আমেরিকা, রাশিয়া ও ব্রাজিলে পরিস্থিতি কিছুতেই নিয়ন্ত্রণে আসছে না। লকডাউন কাটিয়ে নতুন করে ছন্দে ফেরার চেষ্টা করছে ভারতও। এখনও পর্যন্ত দেশে ৪ লক্ষ ৫৬ হাজার ১৮৩ জন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। এই সংখ্যা বৃদ্ধির পিছনে জনবহুল দেশগুলিতে করোনা ছড়িয়ে পড়ার দ্রুততম হারকেই দায়ী করেছেন WHO-এর জরুরি শাখার প্রধান মিখাইল রায়ান।

পাঠকের মন্তব্য