করোনার প্রতিষেধক তৈরির দৌড়ে এগিয়ে কোন কোন সংস্থা 

করোনার প্রতিষেধক তৈরির দৌড়ে এগিয়ে কোন কোন সংস্থা 

করোনার প্রতিষেধক তৈরির দৌড়ে এগিয়ে কোন কোন সংস্থা 

ভ্যাকসিনটি কার্যকর প্রমাণিত হলে দ্রুত তা বাজারে আনতে অক্সফোর্ডের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে ব্রিটিশ ওষুধ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান ‘অ্যাস্ট্রাজেনেকা’।

বিশ্বজুড়ে চলছে করোনা প্রতিষেধক তৈরির প্রচেষ্টা। বেশ কয়েকটি নামি ওষুধ তৈরির সংস্থাই বিভিন্ন পরীক্ষা-নিরীক্ষা চালিয়ে যাচ্ছে। এর মধ্যে অক্সফোর্ড বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিষেধক গবেষণার দিকে তাকিয়ে অনেকেই। অক্সফোর্ডের গবেষকদের তৈরি ভ্যাকসিন এখন পরীক্ষা-নিরীক্ষার মাঝের স্তরে।

ভ্যাকসিনটি কার্যকর প্রমাণিত হলে দ্রুত তা বাজারে আনতে অক্সফোর্ডের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হয়েছে ব্রিটিশ ওষুধ প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠান ‘অ্যাস্ট্রাজেনেকা’। ইতিমধ্যে বৃহৎ পরিসরে অক্সফোর্ডের ভ্যাকসিনটির দ্বিতীয় পর্যায়ের মানব শরীরে পরীক্ষামূলক প্রয়োগ চলছে। সফল হলে, চলতি বছরের সেপ্টেম্বরে এই ওষুধ বাজারে আনা সম্ভব হবে।

হু-র শীর্ষ বিজ্ঞানী সৌম্যা স্বামীনাথন জানিয়েছেন, পরীক্ষা-নিরীক্ষার দিক থেকে সবথেকে এগিয়ে এই প্রতিষেধকটিই। 'খুব শিগগিরিই এই পরীক্ষার ফল প্রকাশ্যে আসতে চলেছে।'

স্বামীনাথন আরও বলেন, মডার্না নামক ওষুধ-প্রস্তুতকারী সংস্থাটি যদিও অ্যাসট্রাজেনেকার থেকে খুব পিছিয়ে নেই। যে ২০০ টি সংস্থা ভ্যাকসিন নিয়ে পরীক্ষা চালাচ্ছে, তার মধ্যে ১৫টি এখন ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল স্টেজে।

স্বামীনাথন আরও জানান, মডার্নার প্রতিষেধক খুব শিগগিরি তৃতীয় দফার ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল করবে। তবে অ্যাসট্রাজেনেকার পরীক্ষা নিয়ে খুবই আশাবাদী হু। এছাড়াও ভ্যাকসিনের বিষয়ে হু চিনের সিনোভ্যাক ও ভারতের গবেষকদের সঙ্গেও যোগাযোগ রাখছে।

বিশ্বে করোনায় মৃত্যুমিছিল অব্যাহত। এখনও পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ৪ লক্ষ ৯৩ হাজার ৬০৪ জনের। আক্রান্তের সংখ্যা ৯৭ লক্ষের বেশি। তবে এরই মধ্যে সুস্থ হয়েছেন ৪৯ লক্ষ ২২ হাজার ২৮৪ জন।

 

পাঠকের মন্তব্য