সামনে আরো খারাপ পরিস্থিতির শঙ্কা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা'র 

সামনে আরো খারাপ পরিস্থিতির শঙ্কা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা'র 

সামনে আরো খারাপ পরিস্থিতির শঙ্কা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা'র 

করোনাভাইরাসে ইতোমধ্যে বিশ্বে আক্রান্তের সংখ্যা এক কোটি ছাড়িয়েছে। সেইসঙ্গে মৃত্যু হয়েছে পাঁচ লাখের বেশি মানুষের। ডব্লিউএইচও বলছে, মহামারি করোনা ভাইরাসের প্রকোপ তো শেষ হয়নি, শেষ হওয়ার কাছাকাছিও যায়নি। বরং ভাইরাসটির সংক্রমণের ভয়াবহ ধাপটি সামনে অপেক্ষা করছে। অবস্থা এমন চলতে থাকলে করোনা সংক্রমণের সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতির শঙ্কা করা হচ্ছে।

ডব্লিউএইচও মহাপরিচালক তেদ্রোস আধানম গেব্রেয়াসুস বলছেন, সতর্ক না হলে পরিস্থিতি আরও ভয়াবহ হতে পারে। তিনি সতর্ক করে বলেছেন, ‌‘করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের ভয়াবহ পরিস্থিতি সামনে অপেক্ষা করছে। এই রকম পরিবেশ ও অবস্থা চলতে থাকলে, আমরা সেই ভয়াবহ পরিস্থিতির আশঙ্কা করছি। এক কোটির বেশি মানুষ করোনায় আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছে এবং পাঁচ লাখের বেশি মানুষ মারা গেছে। এমন পরিস্থিতিতে আমরা বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা যে সমস্যাগুলো এরই মধ্যে চিহ্নিত করেছি, সেগুলো সমাধানে নজর না দিয়ে জাতীয় ঐক্যের অভাব, বৈশ্বিক সহমর্মিতার অভাব এবং দ্বিধা-বিভক্তির বিশ্ব আসলে ভাইরাসকে ছড়িয়ে পড়তেই সহায়তা করছে। সবচেয়ে খারাপটা এখনো আসা বাকি রয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান আরো বলেন, ‘বলতে খারাপ লাগছে, কিন্তু এ ধরনের বৈশ্বিক পরিবেশ ও পরিস্থিতি দেখে সবচেয়ে খারাপ কিছু হওয়ার আশঙ্কাই করছি আমরা।’

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান বিভিন্ন দেশের সরকারকে জার্মানি, দক্ষিণ কোরিয়া ও জাপানের উদাহরণ অনুসরণ করার আহ্বান জানান। তিনি বলেন, এসব দেশ প্রচুর সংখ্যক শনাক্তকরণ পরীক্ষা ও কোভিড-১৯ রোগীর অবস্থান চিহ্নিত করার মাধ্যমে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ নিয়ন্ত্রণের মধ্যে রাখতে সক্ষম হয়েছে।

পাঠকের মন্তব্য