প্রতারণায় সাহেদের ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত

প্রতারণায় সাহেদের ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত

প্রতারণায় সাহেদের ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত

প্রতারণায় মামলায় রিজেন্টের চেয়ারম্যান সাহেদ ও এমডি মাসুদ পারভেজের ১০ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর।

করোনা টেস্ট ও চিকিৎসার নামে প্রতারণার অভিযোগে দায়ের করা মামলায় রিজেন্ট গ্রুপের চেয়ারম্যান মোহাম্মদ সাহেদের ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেছেন আদালত। একই সঙ্গে, প্রতিষ্ঠানটির এমডি এবং সাহেদের সহযোগী মাসুদ পারভেজেরও ১০ দিন করে রিমান্ড মঞ্জুর করেন আদালত। বৃহস্পতিবার (১৬ জুলাই) ঢাকা মহানগর হাকিম জসিম উদ্দিনের আদালত শুনানি শেষে এ রিমান্ড মঞ্জুর করেন। এছাড়াও সাহেদের আরেক সহযোগী ও প্রতিষ্ঠানটির জনসংযোগ কর্মকর্তা তারক শিবলীর দ্বিতীয় দফায় সাতদিনের রিমান্ড মঞ্জুর করা হয়েছে।

এর আগে, সকাল ১০টায় রাজধানীর ডিবি কার্যালয় থেকে সাহেদ ও মাসুদ পারভেজকে একই গাড়িতে করে আদালতে নেয়া হয়। আদালতে নেয়ার পর অধিকতর তদন্তের স্বার্থে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য পুলিশের পক্ষ থেকে ১০ দিনের রিমান্ড আবেদন করা হয়। পরে, শুনানি শেষে আদালত ১০ দিনের রিমান্ড মঞ্জুর করেন।

রিমান্ড আবেদনের শুনানি শেষে মোহাম্মদ সাহেদকে পুনরায় ডিবি কার্যালয়ে নেয়া হয়েছে।

গতকালই জানা যায় মামলার তদন্তের দায়িত্ব গোয়েন্দা (ডিবি) পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়। তখনই, ডিবি পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয় জিজ্ঞাসাবাদের জন্য সাহেদের ১০ দিনের রিমান্ড চাওয়া হবে।

রিজেন্টের প্রতারণা মামলার তদন্ত করছে ডিবি পুলিশ। এজন্য গ্রেপ্তারের পর প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদ শেষে গতকালই সাহেদকে ডিবির কাছে হস্তান্তর করা হয়। ডিবির কাছে হস্তান্তর প্রক্রিয়া শেষে বুধবার বিকেলেই সাহেদের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেয়া হয়। স্বাস্থ্য পরীক্ষা শেষে তাকে পুনরায় ডিবি কার্যালয়ে রাখা হয়। 

পাঠকের মন্তব্য