আমি সৎ, দক্ষ, সফল ও মেধাবী : সাবেক ডিজি

আমি সৎ, দক্ষ, সফল ও মেধাবী : সাবেক ডিজি

আমি সৎ, দক্ষ, সফল ও মেধাবী : সাবেক ডিজি

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল কালাম আজাদ আজ বুধবার দুর্নীতি দমন কমিশনে জিজ্ঞাসাবাদের মুখোমুখি হয়েছেন। করোনাকালে আলোচনার কেন্দ্রবিন্দুতে ছিলেন তিনি। স্বাস্থ্য সরঞ্জাম কেনাকাটায় দুর্নীতির ক্ষেত্রে পরোক্ষভাবে জড়িত থাকার অভিযোগ এবং লাইসেন্সবিহীন রিজেন্ট হাসপাতালকে করোনা চিকিৎসার অনুমতি দেওয়া থেকে শুরু করে নানা কারণে তীব্র সমালোচনার মুখে পদত্যাগ করেন তিনি।

দায়িত্ব ছাড়ার বেশ কিছুদিন অতিবাহিত হওয়ার পর আজ বুধবার সকাল ১০টায় ঢাকার সেগুনবাগিচায় অবস্থিত দুদকের কার্যালয়ে প্রায় ৫ ঘণ্টাব্যাপী জিজ্ঞাসাবাদ করা হয় তাকে। সেখানে থেকে বেরিয়ে আসার পর সাংবাদিকদের সামনে লিখিত বক্তব্য দিয়েছেন আবুল কালাম আজাদ। নিজের প্রশংসা করে তিনি বলেন, আমি একজন কঠোর পরিশ্রমী, নিষ্ঠাবান, সৎ, দক্ষ, সফল ও মেধাবী কর্মকর্তা। তারপরও দায়িত্বে থাকাকালে আমার বিরুদ্ধে নানাভাবে অপপ্রচার হয়েছে।

এক পর্যায়ে বিবেকের তাড়নায় আমি পদত্যাগ করেছি। কারণ আমার কাছে পদ নয়, সম্মানটাই বড়। আমি দায়িত্বে থাকা অবস্থায় স্বাস্থ্যখাতে কিছু দুর্নীতি হয়েছে। দুদক সেসব বিষয়ে আমার কাছে জানতে চেয়েছেন, আমি তাদেরকে জানিয়েছি। এরপরও যখন এ ব্যাপারে তারা সাহায্য চাইবে, আমি প্রস্তুত আছি। আমি চাই, দুর্নীতির বিচার হোক।

দুদক সূত্রে জানা গেছে, দুই বিষয়ে আবুল কালাম আজাদকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। আজ বুধবার জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে করোনাকালীন দুঃসময়ে নিম্নমানের মাস্ক, পিপিই ও অন্যান্য স্বাস্থ্য সরঞ্জাম কেনাকাটায় তার পরোক্ষ ‘সম্মতি’ সম্পর্কে। মূলত তার বিরুদ্ধে অভিযোগ হলো, এই দুর্নীতি সম্পর্কে জেনেও তিনি কোনো ব্যবস্থা গ্রহণের উদ্যোগ নেননি। আগামীকাল বৃহস্পতিবারও তাকে দুদকে ডাকা হয়েছে।

পাঠকের মন্তব্য