পাপিয়া-সুমনের সাজা যাবজ্জীবন চায় রাষ্ট্রপক্ষ 

পাপিয়া-সুমনের সাজা যাবজ্জীবন চায় রাষ্ট্রপক্ষ 

পাপিয়া-সুমনের সাজা যাবজ্জীবন চায় রাষ্ট্রপক্ষ 

ক্যাসিনোকাণ্ডে গ্রেপ্তার বহিষ্কৃত যুব মহিলা লীগ নেত্রী শামীমা নূর পাপিয়া ওরফে পিউ এবং তার স্বামী মফিজুর রহমান ওরফে মতি সুমনের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড দাবি করেছে রাষ্ট্রপক্ষ। অস্ত্র আইনের মামলায় আজ বৃহস্পতিবার আদালতে এ দাবি জানানো হয়।

ঢাকা মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালতে রাষ্ট্রপক্ষের শুনানি করেন পাবলিক প্রসিকিউটর আব্দুল্লাহ আবু। শুনানি শেষে তিনি জানান, সাক্ষ্য-প্রমাণের ভিত্তিতে আসামিদের অভিযোগ প্রমাণ করেছি আমরা। ফলে তাদের সর্বোচ্চ শাস্তি যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হবে বলে আশা করি।

অন্যদিকে, মতি সুমনের পক্ষের শুনানি শেষ হলেও পাপিয়ার পক্ষে যুক্তি উপস্থাপন শেষ হয়নি। তার শুনানির জন্য আগামী ২৭ সেপ্টেম্বর দিন ঠিক করেন আদালত। এ মামলায় ২৩ আগস্ট আসামিদের বিরুদ্ধে চার্জশিট গঠন করেন কে এম ইমরুল কায়েশের আদালত। গত ৮ সেপ্টেম্বর ১২ সাক্ষীর সবার সাক্ষ্যগ্রহণ শেষ হয়।

উল্লেখ্য, গত ২২ ফেব্রুয়ারি ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর থেকে পাপিয়াহ চার জনকে গ্রেপ্তার করে র‌্যাব। তাদের বিরুদ্ধে জাল টাকা বহন ও অবৈধ টাকা পাচারের অভিযোগ আনা হয়। পরদিন পাপিয়ার বাসায় অভিযান চালিয়ে বিদেশি পিস্তল, ম্যাগাজিন ও গুলিসহ বিভিন্ন জিনিস উদ্ধার করা হয়।

ওই ঘটনায় শেরেবাংলা নগর থানায় একটি অস্ত্র ও আরেকটি বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করা হয়। বিমানবন্দর থানায়ও বিশেষ ক্ষমতা আইনে অপর একটি মামলা হয়। তাতে অভিযোগ করা হয়, তিনি তরুণীদের প্রতারণার মাধ্যমে দেহব্যবসায় জড়িয়েছেন এবং প্রভাবশালীদের ব্ল্যাক মেইল করে বড় কাজ বাগিয়ে নিয়েছেন।

পাঠকের মন্তব্য