রেজিট্রারকে ভিসির রুটিন দায়িত্ব দেওয়ায় প্রতিবাদ-নিন্দা

রেজিট্রারকে ভিসির রুটিন দায়িত্ব দেওয়ায় প্রতিবাদ-নিন্দা

রেজিট্রারকে ভিসির রুটিন দায়িত্ব দেওয়ায় প্রতিবাদ-নিন্দা

আব্দুল্লাহ আল তোফায়েল, বেরোবি প্রতিনিধি : শেরে বাংলা কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ের (শেকৃবি) রেজিস্ট্রারকে ভিসির রুটিন দায়িত্ব দেয়ায় প্রতিবাদ জানিয়েছে বেগম রোকেয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের(বেরোবি) শিক্ষক সমিতি। বেরোবি শিক্ষক সমিতির সভাপতি অধ্যাপক ড. একেএম ফরিদ উল ইসলাম এবং সাধারণ সম্পাদক তাবিউর রহমান প্রধান স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের এমন সিদ্ধান্তের প্রতিবাদ ও নিন্দা জানান তারা।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সম্প্রতি শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জারি করা পরিপত্রে শেকৃবি এর রেজিস্ট্রারকে উপাচার্যের 'রুটিন' দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে। শিক্ষামন্ত্রণালয়ের গত ২০ সেপ্টেম্বরের ওই পরিপত্রের মাধ্যমে 'যথাযথ কর্তৃপক্ষের আদেশক্রমে' পরবর্তী উপাচার্য নিয়োগ না হওয়া পর্যন্ত তাকে এ দায়িত্ব পালনের আদেশ দেওয়া হলো বলে উল্লেখ করা হয়। এ ঘটনা বিশ্ববিদ্যালয় ধারণার সাথেই শুধু অসঙ্গতিপূর্ণ নয়, একই সঙ্গে তা বঙ্গবন্ধু ও মুক্তিযুদ্ধের চেতনা পরিপন্থী। 

বিজ্ঞপ্তিতে আরও বলা হয়, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা যখন তাঁর বিচক্ষণ নেতৃত্ব ও নিরলস পরিশ্রমের মাধ্যমে বাংলাদেশকে বিশ্বের দরবারে একটি সম্মানজনক অবস্থানে নিয়ে যাচ্ছেন ঠিক তখন একটি মহল তাঁর অর্জনকে প্রশ্নবিদ্ধ করা ও তাদের অসাধু উদ্দেশ্য বাস্তবায়নের লক্ষে এ ধরনের নিয়োগ আদেশ প্রদানের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়গুলোকে অস্থিতিশীল করবার অপচেষ্টায় লিপ্ত বলে তারা মনে করেন ।

এছাড়া লিখিত বিজ্ঞপ্তিতে আরও উল্লেখ করা হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের ধারণা, স্বায়ত্তশাসনের মর্মবাণী অনুযায়ী উচ্চশিক্ষা প্রতিষ্ঠানের সর্বোচ্চ পদগুলোতে শিক্ষকদের আসীন করাই প্রত্যাশিত ও স্বাভাবিক। শেকৃবি রেজিস্ট্রার পদে কর্মরত একজন কর্মকর্তাকে উপচার্যের 'রুটিন' দায়িত্ব দেওয়াতে বেরোবি শিক্ষক সমিতি বিষ্মিত, মর্মাহত ও ক্ষুব্ধ। উপাচার্য পদে এই ধরণের একটি অনুপযুক্ত নিয়োগের মাধ্যমে বিশ্ববিদ্যালয়ের আচার্য মহামান্য রাষ্ট্রপতির সম্মানও মারাত্মকভাবে ক্ষুন্ন হয়েছে বলে মনে করেন বেরোবি শিক্ষকবৃন্দের সর্বোচ্চ এই সংগঠন।

এহেন পরিস্থিতিতে তারা শেকৃবিতে একজন প্রশাসনিক কর্মকর্তাকে উপাচার্যের 'রুটিন' দায়িত্ব দেয়ার সিদ্ধান্তের তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানানোর পাশাপাশি, অনতিবিলম্বে এই আদেশ প্রত্যাহার করে একজন স্বনামধন্য শিক্ষককে উক্ত বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য পদে নিয়োগের দাবি জানান তারা।

প্রসঙ্গত, শেকৃবির ভিসির মেয়াদপূর্তিতে বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম অব্যাহত রাখতে গত ২০শে সেপ্টেম্বর রেজিস্ট্রার শেখ রেজাউল করিমকে চলতি ভিসির দায়িত্ব দেয়া হয়।

পাঠকের মন্তব্য