বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা’র জন্মদিন উদযাপিত

বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা’র জন্মদিন উদযাপিত

বঙ্গবন্ধুকন্যা শেখ হাসিনা’র জন্মদিন উদযাপিত

সমৃদ্ধির পথে এগিয়ে চলার বাঙালির বাতিঘর, প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা’র ৭৪ তম জন্মদিন আজ বিভিন্ন কর্মসূচির মধ্য দিয়ে উদযাপিত হয়েছে।

১৯৪৭ সালের এই দিনে গোপালগঞ্জের মধুমতি নদী বিধৌত টুঙ্গিপাড়ায় শেখ হাসিনা জন্মগ্রহণ করেন। তিনি স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও বঙ্গমাতা বেগম ফজিলাতুন্নেছার জ্যেষ্ঠ সন্তান।

শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে আওয়ামী লীগসহ সহযোগী সংগঠন এবং বিভিন্ন সামাজিক ও সাংস্কৃতিক সংগঠন আলোচনা সভা, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল, দুস্থদের মাঝে বস্ত্র ও খাবার বিতরন, গাছের চারা বিতরনসহ বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করে। তবে করোনা পরিস্থিতির কারনে স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধি মেনে সবাই কর্মসূচিতে অংশ গ্রহণ করেন।

শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে বিকেলে বঙ্গবন্ধু এভিনিউস্থ আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে দোয়া ও মিলাদ মাহফিলের আয়োজন করে আওয়ামী লীগ।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন আওয়ামী লীগের সাধারন সম্পাদক ওবায়দুল কাদের, আওয়ামী লীগের সভাপতিমন্ডলীর সদস্য বেগম মতিয়া চৌধুরী, ড. আবদুর রাজ্জাক, আবদুল মতিন খসরু, শাজাহান খান, জাহাঙ্গীর কবির নানক ও আবদুর রহমান. তথ্যমন্ত্যী ও আওয়ামী লীগের যুগ্মসাধারন সম্পাদক ড. হাছান মাহমুদ, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক মাহবুব উল আলম হানিফ, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, বিএম মোজাম্মেল হক,মির্জা আজম ও এসএম কামাল হোসেন, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক ড. আব্দুস সোবহান গোলাপ, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক আবদুস সবুর, দপ্তর সম্পাদক ব্যারিস্টার বিপ্লব বড়ুয়া, ও উপদপ্তর সম্পাদক সায়েম খান প্রমুখ ।

এ দিকে প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে জাতীয় প্রেসক্লাবে মিডিয়া ফর ডেভেলপমেন্ট অ্যান্ড পিস (এমডিপি) ‘নারী ক্ষমতায়নে শেখ হাসিনা: বিশ্ব নেতৃত্বে বাংলাদেশ’ শীর্ষক এক সেমিনারের আয়োজন করে। সেমিনারে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন।

জাতীয় প্রেসক্লাবের সাধারণ সম্পাদক ফরিদা ইয়াসমিনের সভাপতিত্বে সেমিনারে বিশেষ অতিথি হিসাবে আলোচনায় অংশ নেন আওয়ামী লীগের মহিলা বিষয়ক সম্পাদক মেহের আফরোজ চুমকি এমপি ও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের এসডিজি বিষয়ক সমন্বয়ক সিনিয়র সচিব জুয়নো আজিজ। সেমিনারে মূলপ্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ডিক্যাব সভাপতি আঙ্গুর নাহার মন্টি। মূল প্রবন্ধের ওপর আলোকপাত করেন নিউজ২৪ টিভির প্রধান র্বাতা সম্পাদক শাহনাজ মুন্নী।

এদিকে রাজধানীর ধানমন্ডির প্রিয়াঙ্কা কমিউনিটি সেন্টারে মহিলা আওয়ামী লীগ বঙ্গবন্ধু কন্যা শেখ হাসিনার ৭৪তম জন্মদিন উদযাপন উপলক্ষে দুঃস্থ মহিলাদের মাঝে সেলাই মেশিন বিতরণ অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন।

অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক এবং শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত থেকে বক্তব্য রাখেন। মহিলা আওয়ামী লীগের সভাপতি সাফিয়া খাতুনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠান পরিচালনা করেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক মাহমুদা বেগম ক্রিক।
শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে জাতীয় প্রেসক্লাবে মাওলানা আকরাম খাঁ হলে বঙ্গবন্ধু দু:স্থ কল্যাণ সংস্থা এক আলোচনা সভার আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন।

সংগঠনের সভাপতি মাহবুব হোসেনের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে আওয়ামী লীগ কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য পারভীন জাহান কল্পনা, আওয়ামী লীগ নেতা এম এ করিম প্রমুখ বক্তব্য রাখেন।

শেখ হাসিনার জন্মদিন উপলক্ষে রাজধানীর বাংলা একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্য বিশারদ মিলনায়তনে ‘লেখক শেখ হাসিনা’ শীর্ষক সেমিনারের আয়োজন করা হয়। বাংলা একাডেমি এই আলোচনা সভার আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে সংস্কৃতি বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি প্রধান অতিথি হিসাবে উপস্থিত ছিলেন।

বাংলা একাডেমির সভাপতি অধ্যাপক শামসুজ্জামান খানের সভাপতিত্বে সেমিনারে ‘শেখ হাসিনা রচিত ও সম্পাদিত গ্রন্থপাঠ কেন অপরিহার্য’ শীর্ষক মূল প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর অধ্যাপক ড. মুহাম্মদ সামাদ। স্বাগত বক্তৃতা করেন বাংলা একাডেমির মহাপরিচালক কবি হাবীবুল্লাহ সিরাজী।

এর আগে প্রতিমন্ত্রী বাংলা একাডেমি আয়োজিত তিন দিনব্যাপী শেখ হাসিনা রচিত ও সম্পাদিত গ্রন্থ প্রদর্শনীর উদ্বোধন করেন।
এদিকে এ উপলক্ষে ঢাকেশ্বরী জাতীয় মন্দিরে বেলা ১১ টায় বিশেষ প্রার্থনা সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। প্রার্থনা সভায় প্রধানমন্ত্রীর সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করা হয়।

এছাড়াও কেন্দ্রীয়ভাবে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে বাদ জোহর এবং দেশের সকল মসজিদে দোয়া ও মিলাদ মাহফিল অনুষ্ঠিত হয়।
এদিকে সকাল ৯টায় আন্তর্জাতিক বৌদ্ধ বিহার (মেরুল বাড্ডা), সকাল ১০ টায় খ্রিস্টান এসোসিয়েশন বাংলাদেশ (সিএবি) মিরপুর ব্যাপ্টিস চার্চ (২৯ সেনপাড়া, পর্বতা, মিরপুর-১০), সকাল ৬টায় তেজগাঁও জকমালা রাণীর গীর্জায় বিশেষ প্রার্থনা অনুষ্ঠিত হয়।
একই সাথে ঢাকাসহ সারাদেশে সকল সহযোগী সংগঠন আলোচনা সভা, দোয়া মাহফিল, বিশেষ প্রার্থনা ও আলোকচিত্র প্রদর্শনীসহ সকল কর্মসূচি যথাযথ স্বাস্থ্য সুরক্ষা বিধি মেনে পালন করা হয়।

ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণের প্রবক্তা স্বপ্নদর্শী এই নেত্রী ১৯৮১ সালে আওয়ামী লীগের নেতৃত্ব গ্রহনের পর থেকে দীর্ঘ আন্দোলন সংগ্রামের মধ্যে দিয়ে দলকে সুসংগঠিত করেন এবং ১৯৯৬ সালে প্রথম, ২০০৮ সালে দ্বিতীয়, ২০১৪ সালে তৃতীয় এবং ২০১৮ সালে চতুর্থবারের মত নির্বাচনে জয়লাভ করে প্রধানমন্ত্রী হন।

তাঁর নেতৃত্বে বাংলাদেশ আজ বিশ্বে উন্নয়নের রোল মডেলে পরিণত হয়েছে।

নতুন শতাব্দীতে বাংলাদেশের ঘুরে দাঁড়ানো মূলত সেখান থেকেই, যা গত কয়েক বছর ধরেই অব্যাহত রয়েছে। শিক্ষা, স্বাস্থ্য, সামাজিক নিরাপত্তা, কৃষি, বিজ্ঞান, তথ্যপ্রযুক্তিসহ সব সূচকে যেভাবে তিনি অগ্রগতি, সাফল্য আর উন্নয়নের ধারা সৃষ্টি করেছেন; তাতে সহজেই অনুমেয়-আগামীর বাংলাদেশ ২০৪১ সালের আগেই তাঁর নেতৃত্বে উন্নত দেশের সারিতে কাঁধ মেলাতে সক্ষম হবে।

পাঠকের মন্তব্য