শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ‘খুলতে চাইলে’ পরামর্শ দেবে সরকার

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ‘খুলতে চাইলে’ পরামর্শ দেবে সরকার

শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ‘খুলতে চাইলে’ পরামর্শ দেবে সরকার

করোনা মহামারির কারণে বন্ধ থাকা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম জানিয়েছেন, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয় চাইলে পরামর্শ দিবে মন্ত্রিসভা বা প্রধানমন্ত্রী। আজ সোমবার মন্ত্রিসভার সিদ্ধান্ত জানাতে সচিবালয়ে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এ কথা বলেন তিনি।

সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে মন্ত্রিপরিষদ সচিব বলেন, সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলোকে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার ব্যাপারে নিজ বিবেচনায় সিদ্ধান্ত গ্রহণের কথা বলা হয়েছে। তার পরেও তারা কোনো সাজেশন বা রুলিং প্রয়োজন মনে করলে মন্ত্রিসভা বা প্রধানমন্ত্রী তা বিবেচনা করবেন।

সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়গুলো রেফার করলে সে অনুযায়ী ব্যবস্থা নেয়া হবে উল্লেখ করে তিনি আরো বলেন, তবে অথরিটি এখন তাদের কাছে দেয়া আছে। তারা চাইলে নিজেরাও সিদ্ধান্ত নিতে পারে, পরামর্শও চাইতে পারে।

এদিকে চলমান সংকটে সন্তানদের শিক্ষাজীবন নিয়ে অভিভাবকরা উদ্বেগ জানিয়ে আসছে। ফলে সার্বিক বিষয়ে জানাতে আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর শিক্ষামন্ত্রী দীপু মনির সংবাদ সম্মেলন করার কথা রয়েছে।

এর আগে গত সোমবার প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রিসভার ভার্চুয়াল বৈঠক শেষে খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেছিলেন, শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খোলার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়। মন্ত্রণালয় যখন চাইবে, তখনই শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিতে পারবে।

এরপর চার শর্তে ব্রিটিশ কাউন্সিল পরিচালিত ইংরেজি মাধ্যমের ‘ও’ এবং ‘এ’ লেভেলের পরীক্ষা আগামী অক্টোবর ও নভেম্বরে নেয়ার অনুমতি দেয় সরকার।  দেশে গত ৮ মার্চ প্রথম কোনো করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এর পরিপ্রেক্ষিতে ১৭ মার্চ থেকে সাধারণ ছুটির আওতায় সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে, যা আগামী ৩ অক্টোবর পর্যন্ত চলবে।

পাঠকের মন্তব্য