আইপি টিভি ও ইউটিউবে সংবাদ পরিবেশন করতে পারবে না 

আইপি টিভি ও ইউটিউবে পরিবেশন করতে পারবে না 

আইপি টিভি ও ইউটিউবে পরিবেশন করতে পারবে না 

আইপি টিভি ও ইউটিউব চ্যানেল সাধারণ টেলিভিশন চ্যানেলের মতো সংবাদ পরিবেশন করতে পারবে না বলে জানিয়েছেন তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ। আজ বৃহস্পতিবার সচিবালয়ের গণমাধ্যম কেন্দ্রে বাংলাদেশ সেক্রেটারিয়েট রিপোর্টার্স ফোরাম (বিএসআরএফ) আয়োজিত ‘বিএসআরএফ সংলাপ’ অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।

তথ্যমন্ত্রী বলেন, আন্তঃমন্ত্রণালয়ের সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আইপি টিভি ও ইউটিউব চ্যানেল সাধারণ টেলিভিশন চ্যানেলের মতো সংবাদ পরিবেশন করতে পারবে না। আপতত সেগুলো শুধু বিনোদন চ্যানেল হিসেবে কাজ করতে পারবে।

তিনি আরো বলেন, তারা আইপি টিভি ও ইউটিউব চ্যানেলগুলোর নিবন্ধনের জন্য সংশ্লিষ্টদের কাছ থেকে আবেদন চেয়েছেন। বর্তমানে সেগুলো প্রাথমিক তদন্তের কাজ চলছে। তদন্ত শেষে হওয়ার পর এসব আইপি টিভি ও ইউটিউব চ্যানেলকে নিবন্ধন দেওয়ার কার্যক্রম শুরু করা হবে।

ড. হাছান মাহমুদ আরো বলেন, স্বাভাবিকভাবে যখন কোনো নতুন টিভি চ্যানেল প্রচারের অনুমতি পায়, তখন তাদের সঙ্গে সঙ্গে সংবাদ পরিবেশনের অনুমতি দেওয়া হয় না। এ জন্য কিছুদিন বিনোদন কার্যক্রম পরিচালনা করে কিছু প্যারামিটার পূরণ করতে হয়। তারপর আবার তাদের কাছ থেকে সংবাদ পরিবেশনের জন্য আলাদা করে আবেদন গ্রহণ করা হয়। এরপর তাদের সংবাদ পরিবেশনের অনুমতি দেওয়া হয়। তাই টিভি চ্যানেলের মতো আপাতত ইউটিউব চ্যানেল ও আইপি টিভিও সংবাদ পরিবেশন করতে পারবে না।

আনলাইন পোর্টালগুলোর নিবন্ধনের কাজ চলমান আছে জানিয়ে তিনি আরো বলেন, ইতোমধ্যে তারা বেশ কয়েকটি অনলাইন পোর্টালকে নিবন্ধনের জন্য অনুমতি দিয়েছেন। ধীরে ধীরে বাকি পোর্টালগুলোকেও নিবন্ধনের অনুমতি দেওয়া হবে। যেহেতু দেশে কয়েক হাজার অনলাইন পোর্টাল চলমান রয়েছে, সেহেতু সেগুলোকে নিবন্ধনের অনুমতি দিতে কয়েক মাস সময় লাগবে। কারণ বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থার তদন্ত প্রতিবেদনের ভিত্তিতেই এসব পোর্টালকে নিবন্ধনের অনুমতি দেওয়া হচ্ছে।

পাঠকের মন্তব্য