পাইকগাছায় উপ-নির্বাচন; উৎসবমুখর আ’লীগ : বিএনপি'র ধীরগতি

পাইকগাছায় উপ-নির্বাচন; উৎসবমুখর আ’লীগ : বিএনপি'র ধীরগতি

পাইকগাছায় উপ-নির্বাচন; উৎসবমুখর আ’লীগ : বিএনপি'র ধীরগতি

আগামী ২০ অক্টোবর পাইকগাছা উপজেলা পরিষদ উপ-নির্বাচন কে সামনে রেখে আ’লীগ ও দলীয় অঙ্গ সহযোগী সংগঠনের সকল পর্যায়ের নেতা কর্মীরা ব্যস্ত সময় পার করছে। জেলা, উপজেলা, ইউনিয়ন এমন কি ওয়ার্ড নেতা-কর্মীদের ব্যাপক মুল্যায়ন করছে সিনিয়র নেতারা।  দলীয় যে কোন্দল ছিল এবাবের নির্বাচনে সব কিছু ভূলে এক কাতারে দাঁড়িয়ে নৌকাকে বিজয়ী করতে নেতা কর্মীরা ছুটে চলেছে উপজেলার এ প্রান্ত থেকে অপর প্রান্ত পর্যন্ত। নেতা কর্মীরাদের মধ্যে এত কর্মচঞ্চাললো আগের কোন নির্বাচনে এরকম দেখা যায়নি। যার যার অবস্থান থেকে ভোট প্রার্থনা করছে কে কার এলাকা থেকে বেশী ভোট নৌকায় পড়বে।

প্রতিদিন জেলা থেকে আ’লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, কৃষকলীগ, সেচ্ছাসেবকলীগ, মহিলা আ’লীগ, যুব মহিলা আ’লীগ সহ বিভিন্ন অঙ্গ ও সহযোগী সংগঠনের বিভিন্ন স্তরের নেতা-কর্মীদের আগমন ঘটছে পাইকগাছায়। ফলে পৌর সদর সহ ১০ ইউনিয়নে পথসভা ও গণসংযোগ করে চলেছে নৌকা প্রতীকের পক্ষে। যার কারণে অনেকটা নড়েচড়ে বসেছে করোনা কালীন রাজনৈতিক স্থিতি অবস্থার। পাইকগাছার বিভিন্ন ইউনিয়নের দলীয় চেয়ারম্যান ও মেম্বরদেরও কদর বেড়েছে দলের নেতাদের কাছে। সব মিলিয়ে আ’লীগের নেতা-কর্মিদের মাঝে চলছে এক নির্বাচনী উৎসবমুখর পরিবেশ। দুপুর দুইটা থেকে রাত ৮ টা পর্যন্ত চলছে মাইকিং। অপরদিকে বিএনপির পক্ষথেকে নির্বাচনী  প্রচার প্রচারণা চলছে ধীর গতিতে। বিএনপির মধ্যে নির্বাচনী উৎসব একেবারে নেই বললেই চলে। 

আগামী ১৮ অক্টোবর রাত ১২ টা থেকে নির্বাচনী সকল প্রচার-প্রচারণা বন্ধ হবে সে কারণে ব্যস্ত সময় পার করছে দু’দলের নেতা-কর্মীরা। সাথে সাথে ব্যস্ত সময় পার করছে জেলা ও উপজেলা প্রশাসন। নির্বাচনকে সুষ্ঠ, অবাধ, নিরপেক্ষ এবং উৎসব মুখর পরিবেশ তৈরি করতে দফায় দফায় চলছে মিটিং। রির্টানিং ও পোলিং এজেন্টদের চলছে ট্রেনিং, আইনশৃঙ্খলা বাহীনিতে চলছে বিভিন্ন ধরণের পরামর্শ ও নির্দশনা। আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থী আনোয়ার ইকবাল মন্টু নির্বাচন সম্পর্কে বলেন, নৌকা মার্কা'র গণ জোয়ার সৃষ্টি হয়েছে। আল্লাহর রহমতে ও সকলের দোয়ায় নৌকা প্রতীক ব্যাপক ভোটের ব্যবধানে বিজয়ী হবে এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার হাতকে আরো শক্তিশালী করবে। বিএনপি মনোনীত ধানেরর্শীষ প্রার্থী ডাক্তার আঃ মজিদ বলেন, নির্বাচন যদি অবাধ, সুষ্ট হয় তাহলে ধানের শীষ প্রতীক বিজয়ী হবে ইনশাল্লাহ। সিনিয়র জেলা নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং অফিসার পাইকগাছা উপ-নির্বাচন এম মাজহারুল ইসলাম জানান, উপজেলা পরিষদ উপ-নির্বাচন সুষ্ঠ, অবাধ ও নিরপেক্ষ ভাবে সম্পন্ন করতে নির্বাচন কমিশন বদ্ধপরিকর। কোন ব্যক্তি, গোষ্ঠী, দলের কাছে প্রভাবিত না হয়ে স্বচ্ছ নির্বাচনের অঙ্গিকারে রির্টানিং ও পোলিং অফিসারদের প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। পর্যাপ্ত নিরাপত্তা ব্যবস্থা রয়েছে। কোন অনিয়ম, অপ্রীতিকর ঘটনার সৃষ্টি করলে কঠোর আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

পাঠকের মন্তব্য