পটুয়াখালীর আগুনমুখা নদীতে স্পীডবোট ডুবি; নিখোঁজ ৪

পটুয়াখালীর আগুনমুখা নদীতে স্পীডবোট ডুবি; নিখোঁজ ৪

পটুয়াখালীর আগুনমুখা নদীতে স্পীডবোট ডুবি; নিখোঁজ ৪

পটুয়াখালীর রাঙ্গাবালী উপজেলার আগুনমূখা নদীতে তলা ফেটে স্পীড বোট ডুবির ঘটনায় ৪ যাত্রী নিখোঁজ রয়েছে বলে সংবাদ পাওয়া গেছে।

ঘটনাটি (বৃহস্পতিবার-২২-অক্টোবর-২০ ইং) তারিখ আনুমানিক সন্ধ্যা ৬:২০ মিনিটের সময় রাঙ্গাবালী উপজেলার আগুনমুখা নদীতে ঘটে।

এ নিয়ে দুর্ঘটনা কবলিত স্পীড বোটের যাত্রী কামাল ফরাজী জানান, বৃহস্পতিবার সন্ধ্যা ৬ টার দিকে রাঙ্গাবালী উপজেলার কোড়ালিয়া স্পীড বোট ঘাট থেকে মমিন এন্টারপ্রাইজের একটি স্পীড বোটের আবুল নামের ড্রাইভার স্পীড বোটে ১৭ জন যাত্রী নিয়ে গলাচিপার পানপট্টি ঘাটের উদ্দেশ্যে রওয়ানা হয়। নদীর মাঝা মাঝি আসার পর তুফানে স্পীড বোটটি তলা ফেটে ডুবে যায়।

এ সময় স্পীড বোটের ড্রাইভার আবুল ও ১২ জন যাত্রী সাঁতরে তীরে উঠতে সক্ষম হন। বাকি ৪ জন যাত্রী এ রিপোর্ট লেখা (রাত ৮টা) পর্যন্ত নিখোজ রয়েছেন।

এঘটনার ব্যাপারে গলাচিপা উপজেলা পরিষদের মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান ও দক্ষিন পানপট্টি স্পীড বোট মালিক সমবায় সমিতি লিমিটেটের সভাপতি ওয়ানা মার্জিয়া নিতু ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করেছেন।

এ বিষয়ে গলাচিপা উপজেলা নির্বাহী অফিসার আশীষ কুমার জানান, স্পিডবোট ডুবির ঘটনায় যাত্রী নিখোঁজ থাকার খবর জানা গেছে। তবে গলাচিপা ও রাঙ্গাবালী উপজেলা প্রশাসন নিখোঁজদের উদ্ধারের চেষ্টায় অব্যাহত রয়েছে বলে জানান।

পাঠকের মন্তব্য