আ'লীগ নেতার বাড়ির নির্যাতনে গৃহকর্মী সাদিয়ার মৃত্যু  

আ'লীগ নেতার বাড়ির নির্যাতনে গৃহকর্মী সাদিয়ার মৃত্যু  

আ'লীগ নেতার বাড়ির নির্যাতনে গৃহকর্মী সাদিয়ার মৃত্যু  

নির্যাতনের কষ্ট সহ্য করতে না পেরে শেষ পর্যন্ত মারা গেলেন আওয়ামী লীগ নেতার বাড়ির গৃহকর্মী সাদিয়া। আজ শুক্রবার বিকেল ৫টায় ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন এই গৃহকর্মীর মৃত্যু হয়।

জানা গেছে, সাদিয়ার বাবা হতদরিদ্র ট্রলি চালক সাইফুল ইসলাম। তাদের বাড়ি শ্রীবরদী পৌরশহরের মুন্সীপাড়া এলাকায়। উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক আহসান হাবিব শাকিলের বাসায় গৃহকর্মীর কাজ করতো সাদিয়া। গত ২৬ সেপ্টেম্বর রাত দেড়টায় আওয়ামী লীগ নেতা শাকিলের বাসভবন থেকে গুরুতর আহত অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে পুলিশ।

প্রত্যক্ষদর্শী ও পুলিশ সূত্র জানায়, সাদিয়ার ওপর সব সময় অত্যাচার করতো শাকিলের স্ত্রী রুমানা জামান ঝুমুর। শিশুটির গায়ের বিভিন্ন স্থানে গরম ছ্যাঁকা দেয়া থেকে শুরু করে গোপনাঙ্গে পর্যন্ত আঘাত করতো। ওইদিন গভীর রাতে নির্যাতনের শিকার শিশুটির আর্তনাদ শোনেন প্রতিবেশীরা। পরে তারাই ৯৯৯ নম্বরে ফোন করে পুলিশকে খবর দেয়।

তখন পুলিশ এসে পৌরশহরের বিথি টাওয়ারের ৬ তলায় শাকিলের ভাড়া বাসা থেকে তাকে উদ্ধার করে শেরপুর জেলা হাসপাতালে নিয়ে যায়। পরে উন্নত চিকিৎসার জন্য তাকে ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়।

এ ঘটনায় শিশুর বাবা বাদী হয়ে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা দায়ের করলে পরদিন শ্রীবরদী থানা পুলিশ এসে ঝুমুরকে গ্রেপ্তার করে। পরে আদালতের মাধ্যমে তাকে কারাগারে পাঠানো হয়।

এ বিষয়ে শ্রীবরদী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ রুহুল আমিন তালুকদার বলেন, অমানষিক নির্যাতনের ফলে মেয়েটি মারা গেছে। এর আগে নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করলেও এটি এখন হত্যা মামলার দিকে যাবে।

পাঠকের মন্তব্য