যুবলীগকে অসম্প্রদায়িক দেশ প্রতিষ্ঠায় ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে

যুবলীগকে অসম্প্রদায়িক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে

যুবলীগকে অসম্প্রদায়িক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে

মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক, লেখক-সাংবাদিক, যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শহীদ শেখ ফজলুল হক মনি'র ৮১তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে সকাল ৯.৩০ মিনিটে ধানমন্ডি-৩২ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের প্রতিকৃতিতে এবং সকাল ১০টায় বনানী কবরস্থানে শহীদ শেখ ফজলুল হক মনিসহ সকল শহীদের কবরে শ্রদ্ধা নিবেদন, দোয়া ও মিলাদ মাহফিল, অসহায় দুঃস্থদের মাঝে রান্না করা খাবার বিতরণ ও সাধারণ মানুষের মাঝে মাস্ক বিতরণ করা হয়, দুপুর ২.৫০টায় ২৩, বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। সভায় ভার্চুয়াল প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের উপদেষ্টাম-লীর সদস্য সাবেক মন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ, ভার্চুয়াল প্রধান আলোচক হিসেবে উপস্থিত ছিলেন-বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের প্রেসিডিয়ামের অন্যতম সদস্য শেখ ফজলুল করিম সেলিম এমপি। সভাপতিত্ব করেন-যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ ও সঞ্চালনা করেন-সাধারণ সম্পাদক আলহাজ মোঃ মাইনুল হোসেন খান নিখিল।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে তোফায়েল আহমেদ বলেন- শেখ ফজলুল হক মনি ছিলেন অতিরিক্ত সাহসি এবং বিশ^স্ত। বাংলাদেশের রাজনীতি ও স্বাধীনতা আন্দোলনের অন্যতম নেতা। তিনি যা বিশ্বাস করতেন, তাই করতেন। আমাদের নেতা। বঙ্গবন্ধু ও অসম্প্রাদায়িক প্রশ্নে তিনি ছিলেন আপোষহীন। শেখ মনির আদর্শ ধারণ করে যুবলীগকে অসম্প্রদায়িক বাংলাদেশ প্রতিষ্ঠায় ঐক্যবদ্ধ থাকতে হবে। 

প্রধান আলোচকের বক্তব্যে-শেখ ফজলুল করিম সেলিম এমপি বলেন- স্বাধীনতা বিরোধী মৌলবাদিরা ষড়যন্ত্র করছে।  এরা সেই শক্তি যারা মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানিদের সহায়তা করেছে। মুক্তিযোদ্ধাদের হত্যা এবং মান বোন দের সম্ভ্রমহানি করতে সহায়তা করেছে। আর কোন সাম্প্রদায়িকতা যেন বাংলাদেশে মাথা উচু করে দাঁড়াতে না পারে, সেজন্য যুবলীগকে সোচ্চার থাকতে হবে। সরকারকে বলবো- মৌলবাদিদের বিরুদ্ধে আর কোন দূর্বলতা নয়, তাদরেকে কঠোরভাবে দশন করতে হবে।তিনি আরও বলেন-মৌলবাদি ও ধর্মান্ধরা ধর্মের নামে অপরাজনীতি শুরু করেছে। এদের অতীত খুজে দেখতে হবে। একাত্তরে এদের ভূমিকা কি ছিল। স্বাধীনতা বিরোধী শক্তির মদদে মৌলবাদিরা ষড়যন্ত্র শুরু করেছে। মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশের অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে মৌলবাদিরে সাম্প্রদায়িকতার ষড়যন্ত্র রুখতে যুবলীগকে সোচ্চার থাকতে হবে।

সভাপতির বক্তব্যে যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ বলেন-বঙ্গবন্ধুর স্বপ্নের বাংলাদেশ বিনির্মানে অর্থনৈতিক মুক্তির দ্বারপ্রান্তে আজ বাংলাদেশ। ঠিক সে সময়ে বাঁধা হয়ে দাঁড়িযেছে মৌলবাদ। সমস্যাকে এড়িয়ে না গিয়ে, ভিতরে যেতে হবে,। ভিতরে ঢুকেই সমাধান করতে হবে। দলমত নির্বিশেষে সকলতে মৌলবাদিদের বিরুদ্ধে দাঁড়াতে হবে। তিনি আরও বলেন- আমার বাবা শেখ মনি ঝুঁকি নিতে ভয় পেতেন না। তিনি ছিলেন বিশ^স্ততার প্রতীক। তিনি বঙ্গবন্ধুর জন্য জীবন দিতে প্রস্তুত ছিলেন এবং শেষ পর্যন্ত তাই করেছেন। বঙ্গবন্ধুতে নিরাপত্তা দিতেই চারটি মূল লক্ষ্য নিয়ে যুবলীগ প্রতিষ্ঠা করেছিলেন। আজকের বঙ্গবন্ধুর কন্যার নেতৃত্বে বাংলাদেশের অগ্রযাত্রায় যুবলীগের প্রতিটি কর্মী নিবেদিত থাকতে। কেউ অগ্রযাত্রা ব্যাহত করতে পারবে না।

যুবলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. মাইনুল হোসেন খান নিখিল বলেন, মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গঠনে শেখ পরশের নেতৃত্বে যুবলীগ রাজপথে রয়েছে। মৌলবাদিরা অপচেস্টা করলে দাঁত ভাঙা জবাব দেয়া হবে।

এসময় আরও বক্তব্য রাখেন-যুবলীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য শেখ ফজলে ফাহিম, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক সুব্রত পাল, সাংগঠনিক সম্পাদক জহির উদ্দিন খসরু, ঢাকা মহানগর উত্তর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকির হোসেন বাবুল, দক্ষিণ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাইনউদ্দিন রানা, উত্তর সাধারণ সম্পাদক ইসমাইল হোসেন, দক্ষিণ ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এইচ এম রেজাউল করিম রেজা প্রমুখ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন-যুবলীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য এড. মামুনুর রশীদ, মঞ্জুর আলম শাহীন, আবু আহমেদ নাসিম পাভেল, শেখ সোহেল উদ্দিন, ডা. খালেদ শওকত আলী, মুজিবুর রহমান চৌধুরী নিক্সন এমপি, মোঃ রফিকুল ইসলাম, মোঃ হাবিবুর রহমান পবন, মোঃ নবী নেওয়াজ, মোঃ এনামুল হক খান, ড. সাজ্জাদ হায়দার লিটন, মোঃ মোয়াজ্জেম হোসেন, ব্যারিষ্টার সেলিম আলতাফ জর্জ এমপি, ইঞ্জিনিয়ার মৃনাল কান্তি জোয়ার্দার, তাজউদ্দিন আহমেদ, মোঃ জসিম মাতুব্বর, মোঃ আনোয়ার হোসেন, যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক বিশ্বাস মতিউর রহমান বাদশা, সুব্রত পাল, মোঃ বদিউল আলম, ব্যারিষ্টার শেখ ফজলে নাঈম, মোঃ রফিকুল ইসলাম সৈকত জোয়ার্দার, সাংগঠনিক সম্পাদক কাজী মোঃ মাজহারুল ইসলাম, ডা. হেলাল উদ্দিন, মোঃ সাইফুর রহমান সোহাগ, মোঃ জহির উদ্দিন খসরু, মোঃ সোহেল পারভেজ, আবু মুনির মোঃ শহিদুল হক রাসেল, মশিউর রহমান চপল, এড. মোঃ শামীম আল সাইফুল সোহাগ, প্রফেসর ড. মোঃ রেজাউল কবির, প্রচার সম্পাদক জয়দেব নন্দী, দপ্তর সম্পাদক মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক মোঃ জহিরুল ইসলাম মিল্টন, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক মোঃ শাহাদাত হোসেন, শিক্ষা প্রশিক্ষণ ও পাঠাগার সম্পাদক ব্যারিষ্টার আলী আসিফ খান রাজিব, আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক কাজী সারোয়ার হোসেন, ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ মোঃ সাদ্দাম হোসেন পাভেল, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক ইঞ্জিনিয়ার মোঃ শামীম খান, তথ্য ও যোগাযোগ (আইটি) সম্পাদক মোঃ সামছুল আলম অনিক, সাংস্কৃতিক সম্পাদক বিপ্লব মুস্তাফিজ, তথ্য ও গবেষণা সম্পাদক মীর মোঃ মহি উদ্দিন, ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক মোঃ নিজাম উদ্দিন চৌধুরী পারভেজ, পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মোঃ হারিছ মিয়া শেখ সাগর, শিল্প ও বাণিজ্য সম্পাদক মোঃ আব্দুল হাই, কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সম্পাদক এড. মোঃ হেমায়েত উদ্দিন মোল্লা, মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মোঃ আব্দুল মুকিত চৌধুরী, ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা খলিলুর রহমান সরদার, মহিলা সম্পাদক এড. মুক্তা আক্তার, উপ-প্রচার সম্পাদক আদিত্য নন্দী, উপ-দপ্তর সম্পাদক মোঃ দেলোয়ার হোসেন শাহজাদা, উপ-গ্রন্থনা ও প্রকাশনা সম্পাদক এড. শেখ নবীরুজ্জামান বাবু, উপ-শিক্ষা প্রশিক্ষণ ও পাঠাগার সম্পাদক কাজী খালিদ আল মাহমুদ টুকু, উপ-আইন সম্পাদক এড. মোঃ এনামুল হোসেন সুমন, উপ-আন্তর্জাতিক সম্পাদক মোঃ সফেদ আশফাক আকন্দ তুহিন, উপ-ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক মোঃ আলতাফ হোসেন, উপ-বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিষয়ক সম্পাদক মোঃ রাসেদুল হাসান সুপ্ত, উপ-তথ্য ও যোগাযোগ (আইটি) সম্পাদক এন আই আহমেদ সৈকত, উপ-সাংস্কৃতিক সম্পাদক ফজলে রাব্বি স্বরণ, উপ-স্বাস্থ্য ও জনসংখ্যা সম্পাদক ডা. মাহফুজুর রহমান উজ্জল, উপ-ক্রীড়া সম্পাদক মোঃ আব্দুর রহমান, উপ-শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক মোঃ ফিরোজ আল-আমিন, উপ-কৃষি ও সমবায় সম্পাদক মোল্লা রওশন জামির রানা, উপ-মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক মোঃ গোলাম কিবরিয়া শামীম, উপ-ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক হরে কৃষ্ণা বৈদ্য, সহ-সম্পাদক মোঃ বেলাল হোসেন ফিরোজ, আবির মাহমুদ ইমরান, তোফাজ্জল হোসেন, মোঃ আতাউর রহমান উজ্জল, মোঃ মামুন আজাদ, মোঃ রাজু আহমেদ, গোলাম ফেরদৌস ইব্রাহিম, ব্যারিস্টার আরাফাত খান, জামিল আহমেদ, মোঃ আব্দুর রহমান জীবন, নাজমুল হুদা ওয়ারেসি চঞ্চল, মোঃ আরিফুল ইসলাম, সামিউল আমিন, মোঃ আলমগীর হোসেন শাহ জয়, মোঃ কামরুল হাসান লিংকন, মোঃ বাবলুর রহমান বাবলু, এ কে এম মুক্তাদির রহমান শিমুল, হিমেলুর রহমান হিমেল, আহতাসামুল হাসান রুমি, মোঃ রাশেদুল ইসলাম সাফিন, মোঃ আবু রায়হান রুবেল, ইঞ্জিঃ কামরুজ্জামান, মোঃ মনিরুজ্জামান পিন্টু, মোঃ মনিরুল ইসলাম আকাশ, মোঃ জয়নাল আবেদীন চৌধুরী রিগান, ডা. মোঃ মঞ্জুরুল ইসলাম ভূইয়া রাফি, কার্যনির্বাহী সদস্য এ কে এম মহিউদ্দিন খোকা মজুমদার, এ্যাড. আব্দুর রকিব মন্টু, কায়কোবাদ ওসমানী, মো: কামরুজ্জামান খান শামীম, এ্যাড. মো: নাজমুল হুদা নাহিদ, সরদার মোহাম্মদ আলী মিন্টু, মো: মোস্তাফিজুর রহমান মাসুদ, প্রফেসর বিমান চন্দ্র বড়–য়া, মো: হুমায়ুন কবির, এ্যাড. গোলাম কিবরিয়া, শেখ মতিন মুসাব্বির সাব্বির, প্রফেসর ড. মো: আরশেদ আলী আশিক, ব্যারিস্টার তৌফিকুর রহমান সুজন, আবুল কালাম আজাদ, জি এম গাফ্ফার হোসেন, এ্যাড. কাজী বসির আহমেদ, রাজু আহমেদ ভিপি মিরান, মো: আব্দুর রহিম ভুইয়া, মো: মুক্তার চৌধুরী কামাল, এ্যাড. সৈকত হায়াত, ইঞ্জি. আবু সাইদ হিরো, ইঞ্জি. মো: আসাদুল্লাহ তুষার, মানিক লাল ঘোষ, এ্যাড. এস এম আসিফ শামস রঞ্জন, ব্যারিস্টার চৌধুরী মৌসুমী ফাতেমা, মো: তারিক আল মামুন, ড. আশিকুর রহমান শান্ত, এ বি এম আরিফ হোসেন, মো: অলিদ হোসেন, মো: বজলুর করিম মীর, এ্যাড. মো: সাজেদুর রহমান বিপ্লব, ড. মো: রায়হান সরকার রিজভী, কেন্দ্রীয় সদস্য মোঃ নাজমুল হোসেন জুয়েল, মোঃ হাসিবুর রহমান রাজন সিকদার, এস এম রেজাউল করিম সিকদার, এ এস এম রেজাউল করিম শামিম, এস এম রাজু, মোঃ মইনুল ইসলাম মামুন, মোঃ মুনায়েম খান, কপিল হালদার সজল, জেমস স্বপন মল্লিক বাবু, এ এন এম ইমরুল হক, মোঃ হুমায়ন কবির, মোঃ সফিউল আলম প্রধান কমল, মোঃ রবিউল ইসলাম রিজভী, মোঃ ইমরান হোসেন রিয়াজ, মোঃ বাহাউদ্দিন মোল্লা বাহার, মোঃ ইসমাইল হোসেন সুমন, এডভোকেট মোঃ জাকিরুল করিম ইমরান, মোঃ আতিকুর রহমান, মোঃ নাজমুল হাসান, মোঃ কামরুল  ইসলাম সজীব, মোঃ রিপন শেখ, এস এম আশরাফুল ইসলাম রতন, নুরুল ইসলাম হাসিব, মোঃ কামরুল হাসান কানন, মোঃ আমিনুল ইসলাম খান শিপন, মোঃ জহিরুল ইসলাম সরদার, ইঞ্জিঃ রাসেল মিজি, গৌতম গাঙ্গুলী, মোঃ আব্দুল্লাহ রানা, আশিকুল ইসলাম, মোঃ গোলাম রাব্বানী, শেখ মোঃ রবিউল ইসলাম, মোঃ উজ্জল খান, এটিএম সায়েম লিয়ন, মোঃ বাবুল আহমেদ খান ইমন, মোঃ কামরুজ্জামান কামরুল, কাজী মাসুদ রানা, মোঃ শেখ জসিম উদ্দিন, মাকসুদুর রহমান, সোলাইমান মিয়া জীবন, এবিএম শেখ ফরিদ জীবন, মোঃ শাহজালাল সূর্য, মোঃ ফারহান  আলম, এড. এম মুক্তারুজ্জামান টুকু, তারেক বিন হায়দার রাজন, মোঃ নুরুল করিম জুয়েল, মোঃ খিজির হায়াত, মোঃ এজাজুল ইসলাম, বেল্লাল আহমেদ ভূইয়া অনিক, সৈয়দ নিয়ামুল ইসলাম নিয়ন, মোঃ কামরুজ্জামান রোকন, সাজু সাহা, ব্যারিষ্টার মোঃ আশরাফুল ইসলাম সজীব, এম জাহাঙ্গীর আলম, মোঃ মুবারক হোসেন, আসাদুজ্জামান আজম, ফাতেমা ইসরাত জাহান বাধন, ব্যারিষ্টার আশরাফুল ইসলাম সজিব, মোঃ লোকমান হোসেন চৌধুরী, ডাঃ মফিজুর রহমান জুম্মা, মোঃ রুহুল আমিন মন্ডল, শেখ আব্দুস সবুর, শেখ মারুফ হোসেন, মোঃ কাইফ ইসলাম, দেলোয়ার হোসেন রাইন, অভিমান্যু বিশ্বাস অভি, মোঃ আজমীর শেখ, জহিরুল হক জাকির, শহিদুল ইসলাম কবির, শেখ রাসেল, নুসরাত জাহান শিমু, এড. ওলিউল্লাহ সারোয়ার সৌরভ, শাকিল আহমেদ তানভীর, চৈতী রানী বিশ্বাস, মোঃ মহিউদ্দিন রানা, মোঃ শাকিল আহমেদ ফরহাদ মিয়া, শেখ মোঃ গিয়াস উদ্দিন, চৈতালী হালদার চৈতী, মোঃ নুর আলম মিয়া, ব্যারিষ্টার এস এম সাইফুল্লাহ রহমান প্রমুখ।
 

পাঠকের মন্তব্য