স্বর্ণালংকার নিয়ে প্রবাসীর স্ত্রী পলাতক, থানায় জিডি

স্বর্ণালংকার নিয়ে প্রবাসীর স্ত্রী পলাতক, থানায় জিডি

স্বর্ণালংকার নিয়ে প্রবাসীর স্ত্রী পলাতক, থানায় জিডি

আবুল কাশেম রুমন, সিলেট : সিলেট সদর উপজেলার জালালাবাদ থানার কেমিদপুর (ভুলতা) গ্রামের প্রবাসী কবির মিয়ার স্ত্রী দুই সন্তানের জননী তাহমিনা বেগম (২৬) নগদ অর্থ ও স্বর্ণালংকার নিয়ে পলাতকের অভিযোগ এনে জালালাবাদ থানায় সাধারণ ডায়রী করেছেন প্রবাসী কবির মিয়ার মা ছফিনা বেগম। যারনং ৩৬৪। তাং ১০/০১/২০২১ইং। 

জিডি সূত্রে জানা যায়, গত ৯ জানুয়ারি রাত সাড়ে ৭টার সময় কাউকে কিছুনা বলে বৃদ্ধ শাশুড়ীকে রেখে পালিয়ে যান প্রবাসী কবির মিয়ার স্ত্রী তাহমিনা বেগম। এসময় বৃদ্ধ শাশুড়ী তাহমিনা বেগমের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে যোগাযোগ করে তার মোবাইল ফোন বন্ধ পান এবং আত্মীয় স্বজনসহ সম্ভাব্য সকল জায়গায় খোজাখোজি করেও তার কোন সন্ধান না পেয়ে অবশেষে থানার স্মরণাপন্ন হন। 

তাহমিনা বেগম সুনামগঞ্জ জেলা রায় সন্তুষপুর গ্রামের মৃত আক্তার আলীর মেয়ে। সে বোরকা পরিহিত অবস্থায় বের হয়ে যায়। তার গায়ের রং ফর্সা, উচ্চতা ৫ ফুট, শারীরিক গঠন মধ্যম, মুখমন্ডল গোলাকার। সে সিলেটের আঞ্চলিক ভাষায় কথা বলে। 

এব্যাপারে প্রবাসী কবির মিয়ার মাছফিনা বেগম বলেন, আমি একজন বৃদ্ধ মহিলা। আমার ছেলে প্রবাসে বসবাস করে। হঠাৎ করে আমার পুত্রবধু তাহমিনা বেগম কাউকে কিছুনা বলে  বাড়ি থেকে পালিয়ে যায়। এসময় তাহমিনা বেগম ঘরে থাকা প্রায় সাড়ে ৫ লক্ষ টাকা ও ১৫ ভরি স্বর্ণালংকার নিয়ে পালিয়ে যায়। তার সাথে সর্বোচ্চ যোগাযোগর চেষ্টা করা হলেও কোন সন্ধান পাইনি।

পাঠকের মন্তব্য