রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাব উত্থাপন

রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাব উত্থাপন

রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাব উত্থাপন

জাতীয় সংসদে নতুন বছরের প্রথম অধিবেশন বা শীতকালীন অধিবেশনে রাষ্ট্রপতির দেয়া ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাব উত্থাপন করা হয়েছে। সংসদের অধিবেশনে চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী প্রস্তাবটি উত্থাপন করেন। এরপর সাবেক চিফ হুইপ আওয়ামী লীগের সংসদ সদস্য অবদুস শহীদ প্রস্তাবটি সমর্থন করেন। ১৯ জানুয়ারি মঙ্গলবার সকাল সাড়ে দশটায় স্পিকার ড. শিরীন শারমিন চৌধুরীর সভাপতিত্বে সংসদের এ অধিবেশন শুরু হয়।

চিফ হুইপ নূর-ই-আলম চৌধুরী তার ধন্যবাদ প্রস্তাবে বলেন, ‘বাংলাদেশ জাতীয় সংসদের এই অধিবেশনের সমবেত সদস্যরা মহামান্য রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদ কর্তৃক ২০২১ সালের ১৮ জানুয়ারি দেয়া ভাষণের ওপর ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি।’ সংবিধানের বিধান অনুযায়ী রাষ্ট্রপতি নতুন বছরের প্রথম অধিবেশনের প্রথম দিনে সংসদে ভাষণ দেন। পরে সংসদ থেকে সেই ভাষণের ওপর ধন্যবাদ প্রস্তাব আনা হয় এবং সংসদে ওই প্রস্তাবের ওপর সংসদ সদস্যদের দীর্ঘ আলোচনা শেষে ধন্যবাদ প্রস্তাবটি গ্রহণ করা হয়।

সোমবার রাষ্ট্রপতি তার বক্তব্যে সরকারি ও বিরোধী দল নির্বিশেষে সবাইকে জাতীয় সংসদে যথাযথ ভূমিকা পালনের আহ্বান জানান। তিনি বলেন, জাতীয় সংসদ দেশের জনগণের আশা-আকাঙ্ক্ষার কেন্দ্রবিন্দু। গণতন্ত্রায়ণ, সুশাসন ও নিরবচ্ছিন্ন আর্থসামাজিক উন্নয়নে সব রাজনৈতিক দল, শ্রেণি-পেশা নির্বিশেষে ঐকমত্য গড়ে তোলার সম্মিলিত উদ্যোগ গ্রহণ করার জন্য আমি উদাত্ত আহ্বান জানাই। স্বচ্ছতা, জবাবদিহিতা, পরমতসহিষ্ণুতা, মানবাধিকার ও আইনের শাসন সুসংহতকরণ এবং জাতির অগ্রযাত্রায় সরকারি দলের পাশাপাশি বিরোধী দলকেও গঠনমূলক ভূমিকা পালন করতে হবে।

পাঠকের মন্তব্য