স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান দ্রুত খুলে দেওয়ার দাবি 

স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান দ্রুত খুলে দেওয়ার দাবি 

স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান দ্রুত খুলে দেওয়ার দাবি 

করোনাভাইরাসের কারণে দীর্ঘদিন বন্ধ রয়েছে দেশের শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান। এতে শিক্ষার্থীরা বড় ধরনের ক্ষতির সন্মুখীন হচ্ছে উল্লেখ করে দ্রুত শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার দাবি জানিয়েছেন সরকারি দলের সদস্যরা। আজ বুধবার সংসদে রাষ্ট্রপতির ভাষণের ওপর আনা ধন্যবাদ প্রস্তাবের আলোচনায় অংশ নিয়ে সরকারি দলের দুইজন সদস্য এই দাবি তোলেন।

তাদের মতে, ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে ক্লাস হলেও তা যথেষ্ট নয়। শিক্ষার্থীদের কথা বিবেচনায় নিয়ে স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান খুলতে হবে।

লালমনিরহাট-১ আসনে সরকারি দলের মোতাহার হোসেন বলেন, “করোনাকালে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায় শিক্ষা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। ভার্চুয়াল ক্লাস হলেও গ্রামের শিক্ষার্থীরা খুব বেশি উপকৃত হতে পারছে না। তাই যত দ্রুত সম্ভব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার আহ্বান জানাচ্ছি।”

একই দাবি জানিয়ে সরকারি দলের আরেক সংসদ সদস্য সাবেক হুইপ সোলায়মান হক জোয়ার্দ্দার ছেলুন বলেন, “শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খোলার বিষয়ে মন্ত্রণালয়ের চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত।” স্বাস্থ্যবিধি মেনে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান খুলে দেওয়ার দাবি জানান তিনি।

দেশে গত ৮ মার্চ প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এরপর গত ১৭ মার্চ থেকে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো বন্ধ রয়েছে। কয়েক ধাপে বাড়ানোর পর কাল ১৬ জানুয়ারি পর্যন্ত এই ছুটি ছিল। সর্বশেষ এ ছুটি ৩০ জানুয়ারি পর্যন্ত বাড়ানো হয়।

শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানগুলো দীর্ঘদিন ধরে বন্ধ থাকায় প্রায় চার কোটি শিক্ষার্থীর পড়াশোনা বিঘ্নিত হচ্ছে। ইতিমধ্যে গত বছরের প্রাথমিক ও ইবতেদায়ি সমাপনী পরীক্ষা এবং জুনিয়র স্কুল সার্টিফিকেট (জেএসসি) ও জুনিয়র দাখিল সার্টিফিকেট (জেডিসি) পরীক্ষা বাতিল করা হয়েছে। গত বছরের উচ্চমাধ্যমিক সার্টিফিকেট (এইচএসসি) পরীক্ষাও হয়নি।

পাঠকের মন্তব্য