ভারতের রাষ্ট্রীয় পদ্মশ্রী সম্মাননা পাচ্ছেন দুই বাংলাদেশী 

ভারতের রাষ্ট্রীয় পদ্মশ্রী সম্মাননা পাচ্ছেন দুই বাংলাদেশী 

ভারতের রাষ্ট্রীয় পদ্মশ্রী সম্মাননা পাচ্ছেন দুই বাংলাদেশী 

এ বছর ভারতের বেসামরিক রাষ্ট্রীয় পদ্মশ্রী সম্মাননা পাচ্ছেন, বাংলাদেশের প্রখ্যাত সঙ্গীতজ্ঞ ও ছায়ানটের সভাপতি সনজীদা খাতুন ও অবসরপ্রাপ্ত লেফটেন্যান্ট কর্নেল কাজী সাজ্জাদ আলী জহির।

চলতি বছর ভারতের প্রজাতন্ত্র দিবস উপলক্ষ্যে বাংলাদেশি এ দু'জনকে সম্মানা দিচ্ছে ভারত সরকার। সোমবার (২৫ জানুয়ারি) সন্ধ্যায় ঢাকায় ভারতীয় হাইকমিশন এ তথ্য জানিয়েছে।

সনজীদা খাতুন একাধারে রবীন্দ্রসংগীত শিল্পী, লেখক, গবেষক, সংগঠক, সঙ্গীতজ্ঞ এবং শিক্ষক। তিনি বাংলাদেশের অন্যতম শীর্ষস্থানীয় সাংস্কৃতিক প্রতিষ্ঠান ছায়ানটের প্রতিষ্ঠাতা সদস্য এবং বর্তমানে সভাপতি। এছাড়া তিনি জাতীয় রবীন্দ্রসংগীত সম্মিলন পরিষদেরও প্রতিষ্ঠাতা সদস্য। প্রচলিত ধারার বাইরে ভিন্নধর্মী একটি শিশু শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান নালন্দা’র সভাপতি।

লেফটেন্যান্ট কর্নেল (অব.) কাজী সাজ্জাদ আলী জহির বাংলাদেশের মুক্তিযুদ্ধে ৪ নম্বর সেক্টরের অধীনে দ্বিতীয় গোলন্দাজ বাহিনীকে সংগঠিত করেন। যুদ্ধে তার সাহসিকতার জন্য বাংলাদেশ সরকার তাকে বীর প্রতীক খেতাব দেয়।

পদ্মশ্রী ভারতের চতুর্থ সর্বোচ্চ বেসামরিক সম্মাননা। শিল্পকলা, শিক্ষা, বাণিজ্য, সাহিত্য, বিজ্ঞান, খেলাধুলাসহ বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশেষ অবদানের জন্য ভারত সরকার এই সম্মাননা দিয়ে থাকে। এর আগে, দুই বাংলাদেশি পদ্মশী এবং দু'জন পদ্মভূষণ সম্মাননা পেয়েছেন। প্রয়াত অধ্যাপক আনিসুজ্জামানকেও পদ্মভূষণ পুরস্কারে ভুষিত করা হয়।

পাঠকের মন্তব্য