সিম ক্রয়ের সময় ফিঙ্গার প্রিন্ট দিতে সতর্ক হওন

সিম ক্রয়ের সময় ফিঙ্গার প্রিন্ট দিতে সতর্ক হওন

সিম ক্রয়ের সময় ফিঙ্গার প্রিন্ট দিতে সতর্ক হওন

করোনাকালে চিকিৎসকগণ জীবনের ঝুকি নিয়ে রোগীদের সেবা প্রদান করে আসছে। এই রকম একজন সিনিয়র নারী চিকিৎসক টেলিমেডিসিন সেবা প্রদান করে অনলাইনে সন্মানী গ্রহণ করতেন। কিন্তু একদল এমএফএস প্রতারক স্পুফ কলের মাধ্যমে উক্ত চিকিৎসককে প্রতারণা করে ওটিপি গ্রহণ করে একাউন্টে থাকা লক্ষাধিক টাকা হাতিয়ে নেয়।

এহেন অভিযোগের ভিত্তিতে এসআই আফছর আহমেদ প্রতারকদের শনাক্ত করলে সিনিয়র এসি ধ্রুব জ্যোতির্ময় গোপ এর নেতৃত্বে ইন্টারনেট রেফারেল টিম মোঃ সাগর আহম্মেদ (২১) কে মাগুরা সদর থেকে, মোঃ বিপুল হোসেন (২৯) কে বালিয়াকান্দি, রাজবাড়ী থেকে, হামিদুল ইসলাম (২৪) কে শ্রীপুর, মাগুরা থেকে গত ২৭/০৬/২০২০ রাত ০১.৩০ হতে ২৮/০৬/২০২০ বিকাল ১৬০০ ঘটিকা পর্যন্ত অভিযান করে গ্রেফতার করে। 

গ্রেফতারকৃতদের কাছ থেকে প্রতারণার কাজে ব্যবহৃত ৫ টি মোবাইল উদ্ধার করা হয়। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তারা উক্ত অপরাধে জড়িত থাকার সহ বহু প্রতারণার কথা স্বীকার করে। গ্রেফতারকৃত আসামীগনের মধ্যে সাগর আহমেদ রবির সিম বিক্রয় করার নামে গ্রামের সহজ সরল মানুষদের কাছ থেকে বার বার আঙুলের ছাপ নিয়ে একাধিক সিম ক্রিয়েটি করে একটি সিম বিক্রি করত; বিপুল হোসন আসামী সাগরের নিকট হতে সিমগুলো নিয়ে মূল প্রতারকদের নিকট সরবরাহ করত এবং হামিদুল ইসলাম মূল কলিং পার্টি।

এই বিষয়ে ডিএমপির কাফরুল থানার মামলা নং ১৮, তারিখ ১২/১০/২০২০, ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন, ২০১৮ এর ২৪/৩০/৩৫ ধারায় রুজু হয়। 
বিজ্ঞ আদালত আসামীদের ১ দিনের রিমান্ড মনজুর করেছে।

তথ্যসুত্র : Cyber Crime Investigation Division, CTTC, DMP 

পাঠকের মন্তব্য