শিল্প-কারখানা খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিলো সরকার 

শিল্প-কারখানা খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিলো সরকার 

শিল্প-কারখানা খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত নিলো সরকার 

করোনা সংক্রমণ রোধে চলমান কোঠর লকডাউনের মধ্যেই শিল্প কারখানা খুলে দেয়ার সিদ্ধান্ত। শুক্রবার (৩০ জুলাই) মন্ত্রীপরিষদ বিভাগ থেকে প্রকাশিত প্রজ্ঞাপনে এই তথ্য নিশ্চিত করেছেন। 

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, সার্বিক পরিস্থিতি বিবেচনায় পহেলা আগস্ট সকাল ৬টা থেকে রপ্তানিমুখী সকল শিল্প কারখানা, চলমান বিধিনিষেধ আওতার বাহিরে রাখার হলো। এর মধ্যে ৫ আগস্ট পর্যন্ত ঘোষিত কঠোর বিধিনিষেধের মধ্যে শিল্প কারখানা বিষয়ে সরকারি সিদ্ধান্তে পরিবর্তন আসল। ঈদ পরবর্তী কঠোর বিধিনিষেধ সব শিল্প কারখানা বন্ধ রাখার বিষয়ে অনড় অবস্থানে ছিলো সরকার। তবে, এরিমধ্যেই ব্যবসায়ীরা কয়েক দফা সরকারের কাছে আবেদন জানায়, রপ্তানিমুখী শিল্প কারখানা খুলে দেয়ার। এমনকি দেশের অর্থনীতি সচল রাখার স্বার্থে এবং আন্তর্জাতিক বাজার হারানোর শংকা বিবেচনায় নিয়ে প্রধানমন্ত্রীর কাছেও শিল্প কারখানা খুলে দিতে ব্যবসায়ীদের পক্ষ থেকে অনুরোধ জানানো হয়। 

করোনা সংক্রমণ ভয়াবহ রূপ ধারণ করায় ১ জুলাই থেকে ১৪ জুলাই পর্যন্ত কঠোর বিধিনিষেধ জারি করে সরকার। তবে, কোরবানির ইদের জীবন ও জীবিকার স্বার্থে ১৫ জুলাই থেকে ২২ জুলাই মধ্যরাত পর্যন্ত বিধিনিষেধ শিথিল করা হয়। এরপর কোরবানি ঈদের পরদিন ২৩ জুলাই থেকে ৫ আগস্ট পর্যন্ত আবারও বিধিনিষেধ জারি করে প্রজ্ঞাপন প্রকাশ করা হয়। ঈদ পরবর্তী বিধিনিষেধ শিল্প কারখানা, সরকার-বেসরকারী প্রতিষ্ঠান সব ধরণের অফিস আদালত বন্ধ রাখা হয়। 

পাঠকের মন্তব্য