বঙ্গবন্ধুর পররাষ্ট্র নীতি বিশ্ব শান্তি প্রতিষ্ঠায় রোল মডেল

প্রফেসর ডক্টর মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ

প্রফেসর ডক্টর মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ

আজ শনিবার, ২৮ আগস্ট, ২০২১ খ্রি, তারিখে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষ্যে ওয়েবেনার জুমে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় জানিপপ-এর প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান প্রফেসর ডক্টর মেজর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ, বিএনসিসিও অনুষ্ঠানের সভাপতি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন। সভাপতির বক্তব্যে প্রফেসর ডক্টর নাজমুল আহসান কলিমউল্লাহ জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানসহ ১৫ আগস্টে নিহত সকল শহীদের রুহের মাগফেরাত কামনা করেন। ড. কলিমউল্লাহ বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান পররাষ্ট্র ক্ষেত্রে জাতীয় স্বার্থ সমুন্নতকরণে স্বর্ণোজ্জল দৃষ্টান্ত স্থাপন করেছেন। স্বদেশ প্রত্যাবর্তন করেই তিনি দেশের আভ্যন্তরীণ ও আন্তর্জাতিক প্রেক্ষাপটে বিভিন্ন যুগান্তকারী পদক্ষেপ গ্রহণ করেন। "সবার সাথে বন্ধুত্ব, কারো সাথে বৈরিতা নয়" মর্মে তিনি বাংলাদেশের পররাষ্ট্রনীতির দর্শন ঘোষণা করেন। এছাড়াও আন্তর্জাতিক সম্পর্ক সুদৃঢ় করার জন্য কোন রাজনৈতিক ব্লকে যোগদান না করে বরং জাতিসংঘসহ বিভিন্ন সংস্থায় বাংলাদেশের সদস্যপদ লাভের উদ্যোগ গ্রহণ করেন।

আজকের আলোচনায় দিনাজপুর থেকে সূচনা বক্তব্য প্রদান করেন গোলাম মুর্শেদ। তিনি বঙ্গবন্ধুসহ সকল শহীদের আত্নার মাগফেরাত কামনা করেন। 

শোকাবহ আগস্ট উপলক্ষ্যে ভার্চুয়াল প্লাটফর্ম জুমে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় মূখ্য আলোচক হিসেবে বক্তব্য উপস্থাপন করেন বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস্ (বিইউপি) এর সহকারী অধ্যাপক, ও বঙ্গবন্ধু গবেষক এম এম আসাদুজ্জামান নূর। তিনি বঙ্গবন্ধুর অসাম্প্রদায়িক ভাবনা নিয়ে বক্তব্য উপস্থাপন করেন। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু বিভিন্ন ধর্মের মানুষদের মধ্যে সম্প্রীতি বজায় রাখার জন্য একটি অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গঠনে নেতৃত্ব দিয়েছেন।

চাঁদপুর থেকে সংযুক্ত হয়ে মোঃ মাসুদ আলম মিল্টন বলেন, জানিপপ-এর মাসব্যাপী অনুষ্ঠান বঙ্গবন্ধুকে গভীরভাবে জানতে সহায়তা করেছে। তাঁর বক্তব্যে তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু জাতিসংঘে বাংলায় বক্তব্য রাখার মাধ্যমে বাংলাকে বৈশ্বিক পরিমন্ডলে পরিচিত করান।

জানিপপ ন্যাশনাল ভলেনটিয়ার, লেখক, ও গবেষক মোহাম্মদ হাবিবুর রহমান বঙ্গবন্ধুর অর্থনৈতিক সংস্কার নিয়ে বক্তব্য উপস্থাপন করেন। জনাব রহমান বলেন, বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের অর্থনৈতিক কাঠামোকে সমৃদ্ধ ও শক্তিশালী করার জন্য পরিকল্পনা কমিশন গঠন করার পাশাপাশি প্রথম পঞ্চবার্ষিক পরিকল্পনা প্রণয়ন করেন। এছাড়াও তিনি পাট, বস্ত্র, চিনিকলসহ বিভিন্ন শিল্পের জাতীয়করণ করেন। ৬টি ব্যাংক প্রতিষ্ঠা করে তিনি ব্যাংকের জাতীয়করণ করেন। এছাড়াও তিনি ২৫ পয়সা, ১/-, ৫/-, ১০/-, ৫০/-, ও ১০০/- টাকার নোট প্রচলন করার মাধ্যমে দেশের মুদ্রা ব্যবস্থাকে শক্তিশালী করেছেন।

জানিপপ ন্যাশনাল ভলেনটিয়ার ও কুমিল্লা আতাকরা কলেজের ইসলামের ইতিহাস ও সংস্কৃতির প্রভাষক মোঃ কামাল উদ্দিন বলেন, দেশকে ভালবাসতে হলে বঙ্গবন্ধু এবং বঙ্গবন্ধুর পরিবারকে ভালবাসতে হবে। ১৫ ও ২১ আগস্ট এর ঘাতক এবং তাদের উত্তরসূরীদের প্রতিহত করে মুক্তিযুদ্ধের চেতনায় একটি সুন্দর বাংলাদেশ বিনির্মাণে সকলকে সহযোগিতা করার আহবান জানান তিনি।

চট্টগ্রাম থেকে সংযুক্ত ছিলেন তরুণ ছাত্রনেতা চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সহ-সম্পাদক মোঃ অরভিন সাকিব ইভান। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু ছোটবেলা থেকেই মানুষের অধিকার আদায়ে সোচ্চার ছিলেন। এছাড়াও জাতির পিতা ১৯৬৬, ১৯৬৯, ও ১৯৭১ সালের বিভিন্ন আন্দোলন সংগ্রামে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছিলেন। জননেত্রী শেখ হাসিনার অগ্রযাত্রাকে এগিয়ে নেয়ার জন্য আমাদেরকে ঐক্যবদ্ধ হয়ে কাজ করতে হবে বলে তিনি আহ্বান জানান। দৈনিক দেশ রুপান্তর পত্রিকার রিপোর্টার জনাব আব্দুল্লাহ আল তোফায়েল বলেন, বঙ্গবন্ধু অসাম্প্রদায়িক বাংলাদেশ গঠনে অগ্রণী ভূমিকা পালন করেছিলেন।

পাঠকের মন্তব্য