কোতয়ালী, চকবাজার, মিরপুরে ২০০০ দুঃস্থদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

কোতয়ালী, চকবাজার, মিরপুরে ২০০০ দুঃস্থদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

কোতয়ালী, চকবাজার, মিরপুরে ২০০০ দুঃস্থদের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ

আজ ২৮/০৮/২০২১ইং রোজ শনিবার সকাল ১১:৩০টায়, ঢাকা জজ কোর্ট আইনজীবী বারের সামনে ও দুপুর ১২:৩০টায় ইমামগঞ্জ মোড়, চকবাজারে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ৪৬ তম শাহাদাতবার্ষিকী উপলক্ষে যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ ও সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ মাইনুল হোসেন খান নিখিল-এর নির্দেশনায় ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের অন্তর্গত ৩৬নং ওয়ার্ড ও ৩০নং ওয়ার্ড যুবলীগ কর্তৃক আয়োজিত ১০০০ অসহায় ও গরীব মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়। সভাপতিত্ব করেন-ঢাকা মহানগর যুবলীগ দক্ষিণ ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মাইন উদ্দিন রানা, সঞ্চালনা করেন-ভারপ্রাপ্ত সাধারণ সম্পাদক এইচ এম রেজাউল করিম রেজা। ঢাকা মহানগর যুবলীগ উত্তরের অন্তর্গত ১৩নং ওয়ার্ডের উদ্যোগে সকাল ১১টায় মিরপুর-২, কাঁচা বাজারে এবং ৬নং ওয়ার্ড যুবলীগের উদ্যোগে বিকাল ৪টায় মিরপুর-৬, চলন্তিকা মোড়ে ১০০০ অসহায়-দুঃস্থ মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রী বিতরণ করা হয়। উক্ত অনুষ্ঠান সমূহে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন-বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ মাইনুল হোসেন খান নিখিল। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন- ঢাকা মহানগর যুবলীগ উত্তর ভারপ্রাপ্ত সভাপতি জাকির হোসেন বাবুল, সাধারণ সম্পাদক মোঃ ইসমাইল হোসেন।

নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে এক বিবৃতিতে যুবলীগ চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ বলেন-১৯৭৫ সালের ১৫ই আগস্ট সংঘটিত হয়েছিল ইতিহাসের এক কলঙ্কময় অধ্যায়। এদিন স্বাধীন বাংলাদেশের স্বপ্নদ্রষ্টা, বাঙালির মহানায়ককে হত্যা করেছিল ক্ষমতালোভী নরপিশাচ কুচক্রী মহল। তিনি আরও বলেন-বাঙালির মহান নেতা জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান চিরঞ্জীব, তাঁর চেতনা অবিনশ্বর। মুজিব আদর্শে শানিত বাংলার আকাশ-বাতাস, জল-সমতল। প্রজন্ম থেকে প্রজন্মের কাছে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের অবিনাশী চেতনা ও আদর্শ চির প্রবাহমান থাকবে। বঙ্গবন্ধু বাংলাদেশের জনগণের মুক্তির যে স্বপ্ন দেখেছিলেন, তাঁর সুযোগ্যকন্যা জননেত্রী শেখ হাসিনার বলিষ্ঠ নেতৃত্বে ক্ষুধা ও দরিদ্রতাকে জয় করে বিশ্বসভায় একটি উন্নয়নশীল, মর্যাদাবান জাতি হিসেবে প্রতিষ্ঠিত হয়েছে বাংলাদেশ। সারাবিশ্বে বাংলাদেশ আজ উন্নয়নের রোল মডেল। বাঙালি জাতি কৃতজ্ঞচিত্তে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী "মুজিব বর্ষ" পালন করছে।

তিনি যুবলীগের নেতা-কর্মীদের উদ্দেশ্যে আরও বলেন-বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগ মানবতার সেবায় সর্বদা নিয়োজিত রয়েছে। করোনাসহ যে কোন দুর্যোগ মোকাবিলায় যুবলীগের নেতা-কর্মী সদা প্রস্তুত থাকবে। আপনারা জানেন ইতোমধ্যে বিভিন্ন জেলায় বন্যা দেখা দিয়েছে। আমি, গত বছরের ন্যায় এবারও যুবলীগের সর্বস্তরের নেতা-কর্মীদের বন্যা দুর্গত মানুষের পাশে দাঁড়ানোর উদাত্ত আহ্বান জানাচ্ছি।

প্রধান অতিথির বক্তব্যে যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব মোঃ মাইনুল হোসেন খান নিখিল বলেন-করোনার শুরু থেকেই মাননীয় প্রধানমন্ত্রী রাষ্ট্রনায়ক শেখ হাসিনার নির্দেশে দেশব্যাপী অসহায়-দুঃস্থ মানুষের মাঝে খাদ্য সামগ্রীসহ প্রয়োজনীয় দ্রব্যাদি, ঔষধ নিয়ে সেবা দিয়ে যাচ্ছে যুবলীগের নেতা-কর্মীরা। যতদিন এই করোনার সংকট থাকবে ততদিন অসহায়-দুঃস্থ মানুষের পাশে থাকবে যুবলীগ।

তিনি আরও বলেন- আপনারা জানেন যে বঙ্গবন্ধু জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান আমাদের স্বাধীনতা এনে ছিলেন, অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য সংগ্রাম করেছিলেন সেই বঙ্গবন্ধুসহ তাঁর পরিবারের সদস্যদের কারা হত্যা করেছিল আজকে তা দিনের আলোর মত পরিস্কার। '৭৫-এর ১৫ই আগস্টের হত্যাকা-ের সাথে খুনি জিয়াউর রহমানের সরাসরি সম্পৃক্ততা রয়েছে। তাই আমাদের এখন সময় এসেছে বঙ্গবন্ধুসহ তাঁর পরিবারের সদস্যদের হত্যার দায়ে খুনি জিয়ার মরোনোত্তর বিচার করা।

তিনি আরও বলেন- খুনি জিয়ার মৃত্যুর পর তার লাশ কোথায় দাফন করা হয়েছিল, বা আদৌ তার লাশের চিহ্ন ছিল কিনা সন্দেহ আছে। তারপরেও বিএনপির নেতারা চন্দ্রিমা উদ্যানে জিয়ার ভূয়া মাজার তৈরি করে মানুষের মনে বিভ্রান্তির সৃষ্টি করছে। চন্দ্রিমা উদ্যানের জিয়ার মাজারকে কেন্দ্র করে জামাত-বিএনপি দেশের বিরুদ্ধে নীলনকশা তৈরি করছে, এমনকি তারা পুলিশের উপরও হামলা করছে। আমরা যুবলীগ এর তীব্র নিন্দা জানাই। সেই সাথে জামাত-বিএনপির যে কোন ষড়যন্ত্র মোকাবিলা করবে যুবলীগ।

এসময় উপস্থিত ছিলেন- যুবলীগের প্রেসিডিয়াম সদস্য এড. মামুনুর রশীদ, হাবিবুর রহমান পবন, সাংগঠনিক সম্পাদক মশিউর রহমান চপল, তথ্য ও যোগাযোগ বিষয়ক সম্পাদক মোঃ শামছুল আলম অনিক, পরিবেশ বিষয়ক সম্পাদক মোঃ হারিছ মিয়া শেখ সাগর, উপ-শিক্ষা প্রশিক্ষণ ও পাঠাগার সম্পাদক কাজী খালিদ আল মাহমুদ টুটু, উপ-আইন বিষয়ক সম্পাদক এড. মোঃ এনামুল হক সুমন, উপ-ত্রাণ ও সমাজকল্যাণ সম্পাদক মোঃ আলতাফ হোসেন, উপ-ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক হরে কৃষ্ণা বৈদ্য, সহ-সম্পাদক বাবলুর রহমান বাবলু, এ কে মে মুক্তাদির রহমান শিমুল, কার্যনির্বাহী সদস্য ইঞ্জি. মোঃ মুক্তার হোসেন চৌধুরী কামাল, ঢাকা মহানগর দক্ষিণ যুবলীগের সহ-সভাপতি সোহরাব হোসেন স্বপন, মুরসালিন আহমেদ, ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের সহ-সভাপতি জাফর ইকবাল, দক্ষিণ যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক মাকসুদুর রহমান, উত্তর যুবলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক সিদ্দিক বিশ্বাস, প্রচার সম্পাদক এরমান হক বাবু, অর্থ বিষয়ক সম্পাদক ফিরোজ উদ্দিন আহমেদ সায়মন, আইন বিষয়ক সম্পাদক এড. শাহানাজ পারভীন হীরা, শিল্প ও বাণিজ্য বিষয়ক সম্পাদক ওমর শরীফ পলাশ, উপ-দপ্তর সম্পাদক খন্দকার আরিফ-উজ-জামান, ঢাকা মহানগর উত্তর যুবলীগের উপ-দপ্তর সম্পাদক কামরুজ্জামান কামরুল, উপ-শিক্ষা প্রশিক্ষণ ও পাঠাগার সম্পাদক মোঃ আলতাফ হোসেন, উপ-মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক সম্পাদক খন্দকার রিয়াজ আহমেদ ফালান, সহ-সম্পাদক হারুনুর রশীদ, হাবিবুর রহমান পারভেজ, সাইদ হাসান শিশির, সদস্য মোস্তাফিজুর রহমান তপু, এম আর মিঠু, এর আর বাচ্চুসহ কেন্দ্রীয়, মহানগর ও বিভিন্ন ওয়ার্ড নেতৃবৃন্দ।

পাঠকের মন্তব্য