কুবি প্রশাসনের ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ, শিক্ষার্থীদের ক্ষোভ 

কুবি প্রশাসনের ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ, শিক্ষার্থীদের ক্ষোভ 

কুবি প্রশাসনের ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ, শিক্ষার্থীদের ক্ষোভ 

কুমিল্লা বিশ্ববিদ্যালয়ের (কুবি) বিভিন্ন বিভাগ ও হলসমূহে ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন। তবে বর্তমানে বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ এবং শিক্ষার্থীরা যেখানে বারবার পরীক্ষা দিতে এসেও করোনার জন্য ব্যর্থ হয়ে ফিরে যাচ্ছে সেখানে এসব ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণকে ভালো চোখে দেখছে না বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ২০১৮-১৯ শিক্ষাবর্ষের শিক্ষার্থী তৌহিদ সানি এ বিষয়ে বলেন, আজ দেখলাম বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভাগ, হল গুলোকে ক্রীড়া সামগ্রী দিচ্ছে প্রশাসন। প্রশ্ন হচ্ছে ক্যাম্পাস বন্ধ, শিক্ষার্থী নেই এই ক্রীড়া সামগ্রী দিয়ে কি ভূত খেলবে? কার জন্য এই সিদ্ধান্ত আমার বোধগম্য নয়। অথচ এই মুহুর্তে সবচেয়ে বেশি প্রয়োজন ছিল ক্যাম্পাস খুলে দিয়ে দ্রুত কিভাবে সব ব্যাচের পরীক্ষা নেয়া যায় সেদিকে চিন্তা করা। কিন্তু সেদিকে গা ছাড়া ভাব দেখিয়ে বন্ধ ক্যাম্পাসে ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ করা হচ্ছে! 

২০১৬-১৭ শিক্ষাবর্ষের আরেক শিক্ষার্থী আল আমিন বলেন, করোনাকালীন বিশ্ববিদ্যালয় বন্ধ থাকায় সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ছিলো শিক্ষার্থীদের জন্য অনলাইনে ক্লাস-পরীক্ষায় অংশগ্রহণের জন্য ইন্টারনেটের ব্যবস্থা করা৷ কিন্তু তা না করে প্রশাসন বন্ধ ক্যাম্পাসে দিচ্ছে ক্রীড়া সামগ্রী।

জানা যায়, মঙ্গলবার (৩১ আগস্ট) দুপুরে বিশ্ববিদ্যালয়ের কনফারেন্স কক্ষে ক্রীড়া পরিচালনা কমিটির আহ্বায়ক অধ্যাপক ড. মো: শামিমুল ইসলামের সভাপতিত্বে ও বিশ্ববিদ্যালয়ের শারীরিক শিক্ষা বিভাগের উপ-পরিচালক মনিরুল আলমের সঞ্চালনায় এসব ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ করেন বিশ্ববিদ্যালয়টির উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরী।

ক্রীড়া সামগ্রী বিতরণ অনুষ্ঠানে উপাচার্য অধ্যাপক ড. এমরান কবির চৌধুরী বলেন, 'পড়াশোনার পাশাপাশি শিক্ষার্থীদের বিনোদন ও খেলাধুলার প্রয়োজন রয়েছে। শিক্ষার্থীদের জন্য আগামীতে আরো ভাল কাজ হবে। ইতোমধ্যে নতুন প্রজেক্টের কাজ শুরু হয়েছে এবং কাজ শেষ হওয়ার পর অবশ্যই শিক্ষার্থীরা আরো বেশি সুযোগ সুবিধার আওতায় আসবে।'

প্রসঙ্গত, বিশ্ববিদ্যালয়ের ক্রীড়া পরিচালনা কমিটির উদ্যোগে শারীরিক শিক্ষা বিভাগের আওতায় দেওয়া এসব সামগ্রীর মধ্যে রয়েছে  বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রতিটি বিভাগের জন্য ফুটবল, ভলিবল, দাবা এবং ৪টি হলের জন্য ফুটবল, ভলিবল, দাবা, ব্যাডমিন্টন র‍্যাকেট, স্ট্যান্ডসহ ক্যারাম বোর্ড ও টেবিল টেনিস বোর্ড।

পাঠকের মন্তব্য