এবার মহিলাদের সব ধরনের খেলায় অংশগ্রহণে নিষেধাজ্ঞা

তালিবানের দখলে গোটা আফগানিস্তান

তালিবানের দখলে গোটা আফগানিস্তান

তালিবানের দখলে গোটা আফগানিস্তান। আশরাফ ঘানি সরকারের পতনের পর গঠিত হয়ে গিয়েছে নয়া তালিবান সরকারও। আর এবার আফগানিস্তানে একের পর এক নিষেধাজ্ঞা জারি হতে শুরু হল। বুধবার সেদেশে মহিলাদের যেকোনও ধরনের খেলায় অংশগ্রহণে নিষেধাজ্ঞা জারি করল তালিবানরা।

ক্রিকেট-সহ যেকোনও খেলার ক্ষেত্রেই মহিলাদের শরীর উন্মুক্ত হয়ে যায়। আর তাই কোনও খেলার সঙ্গেই আফগান মহিলাদের যুক্ত থাকার দরকার নেই। তালিবানের কালচারাল কমিশনের ডেপুটি হেড আহমাদুল্লাহ ওয়াসিক সংবাদমাধ্যমকে দেওয়া বিবৃতিতে এই ফতোয়ার কথা জানায়।

এর আগে মহিলাদের বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়াশোনা করা নিয়েও ফতোয়া জারি করেছিল তালিবান জঙ্গিগোষ্ঠী। কেবলমাত্র মহিলা শিক্ষকরাই ছাত্রীদের পড়াতে পারবেন। সেটা কোনওভাবে সম্ভব না হলে বয়স্ক শিক্ষক যার চরিত্রে কোনও দাগ নেই, কেবল তিনিই ছাত্রীদের পড়ানোর দায়িত্ব নিতে পারবেন। এছাড়া বেসরকারি আফগান বিশ্ববিদ্যালয়গুলিতে ছাত্রীদের সমসময় বোরখা এবং নিকাব পড়তে হবে। শুধু তাই নয়, পাশাপাশি বসতে পারবে না ছেলে-মেয়েরা। মাঝে অবশ্যই পর্দা থাকতে হবে। আর এসবের পর এবার জারি হল নয়া এই ফতোয়া।
 
প্রসঙ্গত, মঙ্গলবার রাতে তাদের নতুন মন্ত্রিসভার সদস্যদের নাম ঘোষণা করেছে তালিবান। আফগানভূমে তালিবান সরকারের প্রধানমন্ত্রী হচ্ছে মহম্মদ হাসান আখুন্দ। ডেপুটি প্রধানমন্ত্রী পদে বসছে মোল্লা আবদুর ঘানি বরাদর। তবে সে একা নয়, দ্বিতীয় ডেপুটি হচ্ছে মৌলবি হানাফি। পররাষ্ট্র মন্ত্রী হচ্ছে আবাস স্তানিকজাই, প্রতিরক্ষা মন্ত্রী পদে বসছে মোল্লা ইয়াকুব। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী হচ্ছে সিরাজউদ্দিন হাক্কানি। সেই সঙ্গে শিক্ষামন্ত্রীর দায়িত্বে মুনির। তবে এটা আপাতত কার্যনির্বাহী ক্যাবিনেট বলে জানিয়েছে তালিবানের মুখপাত্র।

পাঠকের মন্তব্য