লক্ষীপুরে বিষপানে চার সন্তানকে মায়ের হত্যা চেষ্টা 

লক্ষীপুরে বিষপানে চার সন্তানকে মায়ের হত্যা চেষ্টা 

লক্ষীপুরে বিষপানে চার সন্তানকে মায়ের হত্যা চেষ্টা 

মানুষ যখন হতাশ হয়ে পড়ে তখন জীবনের প্রতি আসে চরম ঘৃনা, ব্রাত্য হয়ে পড়ে সব চাওয়া পাওয়া। জীবনে হতাশ হওয়ার অনেক ব্যাপার রয়েছে, যার মধ্যে সবচেয়ে বেশি প্রভাব ফেলে দাম্পত্য জীবনে কলহ। দাম্পত্য জীবনে কলহ দেখা দিলে জীবনের সব হাসি উধাও হয়ে যায়, জীবনে নেমে আসে হতাশার কালোমেঘ। আর সে মেঘে নেমে আসতে পারে চরম বর্ষণ।

এমনি এক ঘটনার সাক্ষী লক্ষীপুর জেলা। জেলার সদর উপজেলায় ঘটেছে এমনি এক নির্মম ঘটনা। হতাশাগ্রস্ত হয়ে মা তার চার সন্তানের মুখে তুলে দিয়েছে বিষ।শুধু তাই নয়, মৃত্যু নিশ্চিত করতে বিষ খাওয়ানোর পর বাসার দরজা বন্ধ করে কেরোসিন দিয়ে আগুন ও দিয়েছে বাসায়।যাতে করে সন্তানরা দেখতে না পারে আর পরবর্তী সকাল।

ঘটনার বিবরনে জানা যায় যে, লক্ষ্মীপুর সদরে অবস্থিত "বাংলাদেশ মেডিকেল" নামক ফার্মেসীর মালিক নাদিম ও তার স্ত্রী মাহমুদা বেগমের পারিবারিক কলহ চলে আসছে দীর্ঘদিন যাবত।একজন আরেকজনকে সহ্য করতে পারেনা। এতে করে প্রায় সময় তাদের মধ্যে ঝগড়া- ঝাটি লেগেই থাকতো। 

রবিবার দিবাগত রাত ৯টার দিকে মাহমুদা ঘরের দরজা বন্ধ করে তার তিন ছেলে জুলহাস (১০) মোর্তুজা (৭) আরমান (৫) ও মেয়ে পান্নাকে (৬) জুসের সাথে বিষ মিশিয়ে পান করায় এবং মাহমুদা নিজেও বিষ পান করে। 

এসময় সবার মৃত্যু নিশ্চিত করতে ঘরের দরজা বন্ধ করে ভেতরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। 

বাচ্ছাদের শোর চিৎকার শুনে এগিয়ে আসেন স্থানীয়রা। এসময় ঘরের ভিতর থেকে আগুন ও ধোঁয়ার দৃশ্য দেখতে পেয়ে দরজা ভেঙ্গে ঘরে ঢুকে স্থানীয় লোকজন। চার সন্তানকে মুমূর্ষ অবস্থায় উদ্ধার করে লক্ষীপুরের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

পাঠকের মন্তব্য