নন্দীগ্রামে ভাইয়ের লাঠির আঘাতে বোনের মৃত্যু

নন্দীগ্রামে ভাইয়ের লাঠির আঘাতে বোনের মৃত্যু

নন্দীগ্রামে ভাইয়ের লাঠির আঘাতে বোনের মৃত্যু

বগুড়ার নন্দীগ্রামে মানসিক প্রতিবন্ধী ছোট ভাইয়ের লাঠির আঘাতে বড় বোন নিহত হয়েছে। 

গত শুক্রবার (২৪ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০ টার দিকে উপজেলার বুড়ইল ইউনিয়নের বীরপলি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। নিহত আজমীআরা (৪২) ওই গ্রামের মৃত কোরবান আলীর মেয়ে ও একই গ্রামের সুমন মিয়ার স্ত্রী। এঘটনার পর ঘাতক মোকছেদ আলী (২৩) কে বাড়ীতে শিকলে বেঁধে রাখা হয়েছে। 

স্থানীয়রা জানান, মোকছেদ আলী মানসিক প্রতিবন্ধী হওয়ায় গত পাঁচ বছর ধরে একই গ্রামে তার বড় বোনের বাড়িতে শিকল দিয়ে বেঁধে রাখা হতো। শুক্রবার তাকে গোসল করানোর জন্য বড় বোন আজমীআরা কিছু সময়ের জন্য শিকল খুলে দিয়ে সংসারের কাজ করছিলেন। মোকছেদ আলী এই সুযোগে একটি মোটা লাঠি নিয়ে বড় বোনের মাথায় আঘাত করে এতে বড় বোন আজমীআরা গুরুতর আহত হয়। তাকে উদ্ধার করে বগুড়া শহীদ জিয়াউর রহমান মেডিকেল কলেজ (শজিমেক) হাসপাতালে ভর্তি করানোর কিছুক্ষণ পর তিনি মারা যান। 

এবিষয়ে নন্দীগ্রাম থানার (ওসি) আবুল কালাম আজাদ জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছে। নিহতের পরিবারের কেউ অভিযোগ করেনি। এছাড়াও ঘাতক মোকছেদ আলী মানসিক প্রতিবন্ধী, লাশ মর্গে পাঠানো হয়েছে। পরিবারের লোকজনদের সঙ্গে কথা বলে আইনি ব্যবস্থা নেয়া হবে।

পাঠকের মন্তব্য